| |

কিশোরগঞ্জে সংখ্যালঘুর বাড়ি-ভাংচুরে মামলায় সাক্ষীকে পিটিয়ে জখম ॥ মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি

নজরুল ইসলাম খায়রুল : সংখ্যালঘু এক হিন্দু পরিবারের ঘরবাড়ি ভাংচুর-লুটপাটের মামলায় আদালত থেকে জামিনে গিয়েই সাক্ষীকে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। মামলা উঠিয়ে নিতে বাদীকেও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে বুক ফুলিয়েই বিচরণ করছে। বৃহস্পতিবার সকালে কিশোরগঞ্জের সদর উপজেলার বিন্নাটির চৌরাস্থা বাজারে বাদীকে হুমকির ঘটনাটি ঘটে। একেই বাজারে সাক্ষীকে মারপিঠের ঘটনাটি ঘটে আগের দিন বুধবার বিকাল চারটার দিকে। পরে তাকে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ঘটনার শিকার সাক্ষী নারায়ণ চন্দ্র সরকার ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গত পহেলা ফেব্র“য়ারী স্থানীয় একদল সন্ত্রাসী মারিয়া গ্রামের কানু চন্দ্র সরকারের পৈতৃক ভিটে বাড়ী থেকে মাথা গোজার ঠাঁই বসত ঘরটি ভেঙ্গেচুরে সমস্ত মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। ঘটনার ব্যাপারে গিয়াস উদ্দিন, জসিম উদ্দিন, কুতুব উদ্দিনসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় মামলা নং ৩৬ রুজু হলে আসামীরা গত মঙ্গলবার আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পায়। জামিনে গিয়েই আসামীরা মামলা উঠিয়ে নিতে বাদীকে চাপ ও হুমকি দিতে থাকে। এ মামলার সাক্ষীদেরকেও সাক্ষ্য না দিতে নানান ভাবে অত্যাচার ও উৎপিড়ন শুরু করেন। সন্ত্রাসীদের হুমকি-ধামকিতে এলাকার কেউ মুখ খোলতে সাহস পাচ্ছে না।