| |

ময়মনসিংহ ডিবি’র অভিযান ব্যাটারী চালিত রিক্সাচালক হযরত হত্যার হোতা ৩ জন গ্রেফতার ও আলামত উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ময়মনসিংহ শহরের গলগ-া ঠাকুরবাড়ি নিবাসী ব্যাটারী চালিত রিক্সাচালক হযরত আলি (৩৭) হত্যাকান্ডে জড়িতদের পুলিশ সনাক্ত ও গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে। পুলিশ সুত্রে জানা যায়, যাত্রীবেশী অজ্ঞাত নামা দৃষ্কৃতকারীরা গত ১ মার্চ (মঙ্গলবার) রাত অনুমান ১১ টায় শহরের কাচিঝুলি সাহেব কোয়ার্টার এলাকায় ছুরিকাঘাতে চালক হযরত কে হত্যা করে রিক্সাটি নিয়ে যায়। এব্যাপারে কোতোয়ালী মডেল থানায় দঃবি’র ৩০২/৩৪ ধারায় মামলা নং-০৫ তাং-০২/০৩/১৬ ইং দায়ের হয়। পরবর্তীতে পুলিশ সুপার মঈনুল হকের নির্দেশে ময়মনসিংহের ডিবি পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির সুত্র ধরে হত্যাকারীদের সনাক্ত করে এবং গত ০৮/০৩/১৬ ইং তারিখ ভোররাতে মনতলা এলাকায় অভিযান চালিয়ে মুক্তাগাছার কুমারগাতা গ্রামের আবদুল জলিলের পুত্র আল আমিন (২০) কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। ধৃত আল আমিন স্বেচ্ছায় ময়মনসিংহের বিজ্ঞ আদালতে কাঃবিঃ ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী দেয়। তারই জবানবন্দীর প্রেক্ষিতে ডিবি পুলিশ গতকাল বৃহস্পতিবার (১০ মার্চ) ভোর পোণে ৫ টায় মুক্তাগাছার রঘুনাথপুর রৌয়ারচর এ অভিযান চালিয়ে মূল হত্যাকারী দু’সহোদর স্বপন (২০) ও সুমন (২৬) কে গ্রেফতার করে। এই দুজনের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পুলিশ সেই রিক্সা, ৪টি ব্যাটারী, ১টি ইঞ্জিন ও নিহত হযরতের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন সেটটি উদ্ধার করে। ডিবি’র ও সি ইমারত হোসেন গাজীর তত্ত্বাবধানে এই হত্যাকান্ড উদঘাটন ও হত্যাকারীদের গ্রেফতারে সফল অভিযানে ছিলেন এসআই মফিজুল ইসলাম, এসআই শহীদুল ইসলাম, এসআই ফারুক আহম্মেদ ও সঙ্গীয় ফোর্সগন।