| |

কিশোরগঞ্জে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৭তম জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস ২০১৬ উদযাপিত

নজরুল ইসলাম খায়রুল ঃ শিশু গড়বে নতুন দেশ,বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে কিশোরগঞ্জে যথাযোগ্য উৎসাহ উদ্দীপনায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৭তম জন্ম দিবস ও জাতীয় শিশু দিবস ২০১৬ উদযাপিত হয়েছে । গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসক মো. আজিমুদ্দিন বিশ্বাসের নেতৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি কিশোরগঞ্জ পুরাতন স্টেডিয়াম থেকে বের হয়ে জেলা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে গিয়ে শেষ হয়। জেলা শিল্পকলা একাডেমী হলে আয়োজিত আলোচনা সভা,সাংস্কৃতিক ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করে শিশু শিক্ষার্থী রাফিদ বিন ওয়ালিউল্লাহ। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. আজিমুদ্দিন বিশ্বাস। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান, পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন খান, পিপি অ্যাডভোকেট শাহ আজিজুল হক,জিপি অ্যাডভোকেট বিজয় শংকর রায়,সাংবাদিক সাইফুল হক মোল্লা দুলু,সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অ্যাডভোকেট মতিউর রহমান প্রমুখ। বক্তারা বর্তমান শিশুদের উদ্দেশ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন,সংগ্রাম ও আদর্শের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা সম্পর্কে সঠিক ইতিহাস তুলে ধরেন । এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মাহাবুব হাসান শাহীন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) তরফদার মো.আক্তার জামীল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) গোলাম মোহাম্মদ ভুইয়া,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) এস,এম.মোস্তাইন হোসেন,জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা তায়েফা হাসিনাসহ প্রশাসনের কর্মকর্তা,মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ,শিক্ষক-শিক্ষিকা,সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও স্কুল-কলেজের বিপুলসংখ্য ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন । অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন কবি বাঁধন রায় ও আনুষ্কা চক্রবর্তী দিয়া । স্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিশুশিল্পীদের নিয়ে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দরা । এছাড়াও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম দিবস ও শিশু দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে বিভিন্ন মসজিদ,মন্দির,গীর্জা,ধর্মীয় উপসনালয়ে মিলাদ-মাহফিল ও দোয়া/প্রার্থনা করা হয় । স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনায় হাসপাতাল,কারাগার,এতিমখানা,সরকারি শিশু পরিবার (বালক-বালিকা)সমূহে বিশেষ খাবার পরিবেশন করা হয়। সিভিল সার্জন অফিসের ব্যবস্থাপনায় কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে ও শিল্পকলা একাডেমীতে স্বাস্থ্য সেবা কর্মসূচী পালন করা হয় । অন্যদিকে জেলা তথ্য অফিসের ব্যবস্থাপনায় বিভিন্ন জনবহুল স্থানে ডকুমেন্টারি ও স্থানীয় পত্রিকাসমূহ বিশেষ ব্যবস্থায় ক্রোড়পত্র প্রকাশ করে ।