| |

ময়মনসিংহের আনন্দমোহন কলেজে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের তিনদিন ব্যাপী সৃজনশীল শিল্প-সাহিত্য উৎসবের সমাপনি ও পুরস্কার বিতরণ।

গত ১৫ মার্চ মঙ্গলবার বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি ময়মনসিংহ-নেত্রকোনা ইউনিটের উদ্যোগে আনন্দমোহন কলেজে তিনদিন ব্যাপী “সৃজনশীল শিল্প-সাহিত্য উৎসব” সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে।
উৎসব গত ১৩ মার্চ সকাল ১০ টায় শুরু হয়ে গত তিন দিন সকাল ০৯- ০১টা পর্যন্ত চলেছে।
উৎসবে বিভিন্ন শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা তাদের নিজের লেখা,আকা,ভাবনা পোস্টার পেপারে বিভিন্ন ভাবে লিখে,একে ফুটিয়ে তুলেছে। এর মাঝে ছিল হালকা প্রতিযোগিতাও। কবিতা,ছড়া, অনুগল্প,অংকন,কার্টুন, চিঠি/পত্র, ডায়রি,
আল্পনা,নকশা,একক দেয়ালিকা, ফটোগ্রাফি এবং সৃজনশীল ভাবনা (এই বিভাগে অংশগ্রহণকারিদের নিজেদের যে কোন ইতিবাচক ভাবনা লিখে,একে বা ডিজাইন করে ফুটিয়ে তোলার আহবান করা হয়েছিল)
বিভাগে ৬৫ জনকে অপেক্ষাকৃত ভাল করায় বই পুরস্কার প্রদান করা হয়। এই প্রতিযোগিতায় উন্নত দর্শন চিন্তা থেকেই কাউকে প্রথম,দ্বিতীয়, তৃতীয় এই ভাবে বিজয়ী করা হয়নি। পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আফজালুর রহমান ভুঁইয়া। বিশেষ অতিথি ছিলেন কবি অনুবাদক শামসুল ফয়েজ, বীর মুক্তিযোদ্ধা চৌধুরী আতা ইলাহী ও কবি স্বাধীন চৌধুরী। সভাপতিত্ব করেন ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক এনামুল হক তালুকদার। স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে উপস্থিত থেকে সার্বিক সহযোগীতা করেছে সাদিকুল ইসলাম রিয়াদ, জান্নাতুল ফেরদৌসি ইভা,আরেফিন হিরা, তানিয়া আক্তার,করুণাধারায় পুপে, শফিক,রুমাএবং বিএনসিসি-র স্বেচ্ছাসেবক দলের ক্যাডেটরা। পুরো আয়োজনে সার্বিক সমন্বয় করেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ভ্রাম্যমাণ লাইব্রেরি ময়মনসিংহ-নেত্রকোনা ইউনিটের ইনচার্জ এম. রবিউল ইসলাম।