| |

গফরগাঁওয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধে অসহায় মহিলার বসতঘর ভাংচুরসহ আসবাবপত্র লুট করেছে দুর্বৃত্তরা

গফরগাঁও প্রতিনিধি ঃ ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধে ১৫ লক্ষ টাকা চাঁদা না পেয়ে এক অসহায় মহিলার বসতঘর ভাংচুরসহ আসবাবপত্র লুট করেছে দৃর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৩ এপ্রিল, রোববার গভীর রাতে উপজেলার পাগলা থানাধীন কান্দিপাড়া শেউলী গ্রামে। এ ঘটনায় অসহায় মহিলা নাসিমা সুলতানা বাদী হয়ে ময়মনসিংহের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট দ্রুত বিচার অপরাধ ট্রাইব্যুনাল আদালতে একটি মোকদ্দমা দায়ের করেছেন।
অসহায় মহিলা ও মোকদ্দমায় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পাগলা থানাধীন কান্দিপাড়া শেউলী গ্রামে অসুস্থ্য মোঃ মফিজউদ্দিনের স্ত্রী নাসিমা সুলতানার সাথে একই গ্রামে প্রতিবেশী প্রভাবশালী শামছুল আলম সরকার গংদের দীর্ঘদিন থেকে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। বিবদমান জমির উপর থেকে অসহায় মহিলা নাসিমা সুলতানার বসতঘর উচ্ছেদ করতে না পেয়ে শামছুল আলম সরকার গংরা তার কাছে ১৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে আসছে। দাবীকৃত ১৫ লক্ষ টাকা দিতে অস্বীকার করার গত ৩ এপ্রিল রাত অনুমাণ দেড় টায় দিকে শামছুল আলম সরকার গং সহ অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন সন্ত্রাসী অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত অবস্থায় নাসিমা সুলতানার ২০০৮ সালের ক্রয়কৃত ৩.২৫ শতাংশ জমি উপর তৈরী টিনের বসতঘরের অর্তকিতভাবে হামলা চালায়। এ সময় নাসিমা সুলতানা বাঁধা দিলে তাকে মারপিট করে ও তার স্বামীকে হাত-পা বেধে ফেলে রেখে বসতঘরসহ আসবাবপত্র ভাংচুর করে একটি ট্রাকে ভর্তি করে নিয়ে যায় এবং উল্টো হুমকি দেয় দাবীকৃত ১৫ লক্ষ টাকা দিলে জমি উপর থাকতে দিবে, না হলে দিবে না। অসহায় মহিলা নাসিমা সুলতানা অভিযোগ করে বলেন, এ ঘটনার পরদিন পাগলা থানায় অভিযোগ দিতে গেলে ওসি চাঁন মিয়া অভিযোগ নিতে অস্বীকৃতি জানান। এর আগেও পাগলা থানার ওসি তাদের পক্ষ নিয়ে কোন মামলা ছাড়াই আমার অসুস্থ্য স্বামীকে পুলিশ পাঠিয়ে দিয়ে সকালে বাড়ি থেকে ধরে থানায় নেয় এবং বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে রাত্রে ছেড়ে দেয়। এ জমি সংক্রান্ত বিরোধের কারণে পাগলা থানা পুলিশের দ্বারা অন্যায় অত্যাচার হতে রেহাই পাওয়ার জন্য নাসিমা সুলতানা বাদী হয়ে গত ২৯ মার্চ গফরগাঁও সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার বরাবরে একটি আবেদনও দায়ের করেন। বর্তমানে শামছুল আলম সরকার গং ও তার সন্ত্রাসী এবং পুলিশের অব্যাহত হুমকির কারণে অসুস্থ্য স্বামী ও সন্তানদের নিয়ে অসহায় অবস্থায় জনৈক আত্বীয় বাড়িতে বসবাস করছেন বলে নাসিমা সুলতানা জানান।