| |

ঈশ্বরগঞ্জে এক শিক্ষক দিয়ে চলছে ৩শ’ ৮৯ শিক্ষার্থীর পাঠদান

ঈশ্বরগঞ্জ থেকে আবুল কালাম আজাদ : ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার রাজিবপুর ইউনিয়নের উজান চরনওপাড়া কমিউনিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকটের কারণে ছাত্রছাত্রীদের পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে । ৩শ’ ৮৯ জন শিক্ষার্থীর জন্য প্রধান শিক্ষক সহ শিক্ষক রয়েছেন মাত্র ২ জন। আর এ দু’জন শিক্ষকের মধ্যে প্রধান শিক্ষক নাজমা বেগম রয়েছেন সিইনঅ্যাড প্রশিক্ষণে ময়মনসিংহে। উপজেলা সদর থেকে ২০ কিলোমিটার দুরে  দূর্ঘম  চর এলাকায় এই বিদ্যালয়টি। উপজেলা শিক্ষা অফিসে মাসিক  মিটিং সহ বিভিন্ন দাফতরিক কাজে প্রধান শিক্ষক বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত থাকতে হয়। বর্তমানে প্রধান শিক্ষক প্রশিক্ষণে থাকায় সহকারী শিক্ষক আব্দুর রহমানকেই চালাতে হয় প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রের্ণীর ছাত্র ছাত্রীদের ক্লাস । সরেজমিন বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় সহকারী শিক্ষক ৫ম শ্রেণী ক্লাস নিচ্ছেন। অন্যান্য ক্লাসে কোন শিক্ষক না থাকায় ছাত্র ছাত্রীরা  নিজেরাই নিজেদের পাঠদান করছে। বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থী হাফছা আক্তার তানজিলা , অনিকা আনঞ্জুমান আরা জানায় তারা শিক্ষকের অভাবে যেমন সঠিক  পাঠদান গ্রহণ করতে পারছেনা তেমনি প্রাথমিক সমাপনি পরীক্ষার জন্য ভাল ভাবে প্রস্তুতিও  নিতে পারছি না এতে সমাপনি পরীক্ষায় আমাদের পক্ষে  ভালো রেজাল্ট করা সম্ভব হবে কি না এ নিয়ে দুশ্চিস্তায় আছি। আর এ অবস্থায় অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা  হতাশা গ্রস্থ হয়ে পড়ছেন। বিদ্যালয়ের একমাএ  কর্মরত সহকারী   শিক্ষক আব্দুর রহমান জানান বিদ্যালয়ের ১ম থেকে ৫ম শ্রেণী ক্লাস সহ অফিসিয়াল কাজ পরিচালনা করা  আমার একার পক্ষে  খুবই কষ্টকর । এছাড়াও যত কষ্টই করিনা কেন বিদ্যালয়ের ছাএছাএীদের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হয় না। এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আলী জানান একজন পুলের শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই শিক্ষক কর্মস্থলে যোগদান করেনি।