| |

টাঙ্গাইলে বোরো ধান কাটার ধুম ॥ হতাশ চাষীরা

বিভাস কৃষ্ণ চৌধুরী: টাঙ্গাইলে সবত্র বোরো ধান কাটার ধুম চলছে। মাঠে-ময়দানের প্রচ- তাপদাহ উপেক্ষা করে চাষীরা ক্ষেত থেকে পাকা ধান সংগ্রহ করতে ব্যস্ত সময় পাড় করছে। কিন্তু বাজারে ধানের দাম খুব কম। ধানের ন্যায্যমূল্য না পেয়ে চাষীরা হতাশ হয়ে পড়েছেন।
সরেজমিনে টাঙ্গাইলের এনায়েতপুর, বল্লা, গালাসহ বেশ কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সেখানকার চাষীরা ধান কাটছেন এবং ধান তুলছেন। অনেকেই আবার ধান কেটেও ফেলেছেন।
এ বিষয়ে কথা হয় বল্লা বাজারের চাষী এবং মিল মালিক ইকবাল হোসেনের সাথে। তিনি বলেন, আমি ২০ বিঘা জমিতে ধান চাষ করেছি। এতে আমার ২ লাখ টাকার খরচ হয়েছে। আমি আশা করছি ৪০০ মন ধান পাবো। এতে আমি লাভবান হবে না। ক্ষতিও হবো না। কি কারণে এমন অবস্থা জানতে চাইলে বলেন, বাজারে ধানের দাম কম। ধানের ধান কম থাকায় আমরা লাভবান হচ্ছি না। কামলার দাম, সারের দামসহ প্রয়োজনীয় সকল কিছুরই দাম বেশি। শুধু ধানের দাম কম। ধানের প্রতিমণ দামও ৫০০, কামলার দিনপ্রতি মজুরি ৫০০ টাকা।
কখা হয় সেলিমের সাথে। তিনি বলেন, আমি ২ বিঘা জমিতে ধান চাষ করেছি। ধানের কম থাকায় আমাদের লোকসান হচ্ছে। আমি এবার ধানের আবাদ কম করেছি। পাশাপাশি বিভিন্ন শাক-সবজির চাষ করেছি। শাক-সবজিতে খরচ কম হয়। এতে লাভ হয় বেশি।
টাঙ্গাইল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে (২০১৫-১৬) টাঙ্গাইলের বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয় এক লাখ ৬৬ হাজার ৬২১ হেক্টর জমিতে। আবাদ করা হয় এক লাখ ৬৮ হাজার ৭৬৯ হেক্টর জমিতে। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে দুই হাজার ১৪৮ হেক্টর বেশি। এবার উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ছয় লাখ ৩২ হাজার মেট্রিক টন।