| |

দেশের চেহারা বদলানোর জন্য আমরা জেল খাটি, জুলুম সহ্য করি কিন্তু লুটপাট করে খাইনা : কৃষিমন্ত্রী

শেরপুর থেকে আলমগীর: ঈদ উল আযহা উপলক্ষে ১০  কেজি করে স্পেশাল ভিজিএফ এর চাল বিরতণকালে কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, আল্লাহর রহমতে গত সাড়ে ছয় বছরে শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায়, উনার নেতৃত্বে আমরা দেশটাকে এমন এক জায়গায় নিয়ে গেছি,  যে আমরা যদি এগুলো নাও দিতাম, তবু আমি বিশ্বাস করি, বাংলাদেশের কোন মানুষ ভাত না খেয়ে থাকবে না। এই দিনগুলি  দেখার জন্যই কিন্তু আমরা রাজনীতি করি। আমরা যে জেল খাটি, জুলুম সহ্য করি, কি কারণে করি? দেশের চেহারা বদলানোর জন্য করি। সেই দায়িত্ব আমাদের মধ্যে আছে। ৩ দিন ব্যাপী তার নির্বাচনী এলাকা  শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার বাঘবেড় ইউনিয়ন পরিষদে আজ সোমবার বিকেলে ১ হাজার ২৫০জন হতদরিদ্রের মাঝে ভিজিএফ এর চাল বিতরণের আগে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
এসময় কৃষিমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর কথা মনে করে আমি যে শক্তি পাই, যে দায়িত্ব বোধ করি সেই বোধ, সেই দায়িত্ব থেকেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন সফল করে আমরা দেশের মানুষকে খাওয়াচ্ছি, পড়াচ্ছি, লেখাপড়া করাচ্ছি। গরীব দেশ থেকে নিম্ন মধ্যবিত্তের  দেশে রূপান্তরিত হয়েছি। আগামীতে মধ্যবিত্ত এবং উচ্চবিত্ত হব।
এদিন তিনি সচিবালয়ে মন্ত্রী পরিষদের বৈঠক শেষে নালিতাবাড়ী এসে সন্ধ্যা থেকে রাত পর্যন্ত বাঘবেড়, রাজনগর, নন্নী ও  পোড়াগাঁও এ চার ইউনিয়নের প্রায় ৫ হাজার হতদরিদ্রের মাঝে ভিজিএফ এর চাল বিতরণ করেন।
এসময়  শেরপুরের জেলা প্রশাসক ডাক্তার এ এম পারভেজ রহিম, পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম, নালিতাবাড়ী উপজেলা পরিষদের  চেয়ারম্যান একেএম মুখলেছুর রহমান রিপন, শেরপুরের পৌর  মেয়র হুমায়ন কবীর রুমানসহ প্রশাসনের কর্মকর্তা ও দলীয়  নেতৃবৃন্দ সাথে ছিলেন।