| |

গোপালপুরে মাদকাসক্ত পুত্রকে পুলিশে সোপর্দ করলেন মা

এ কিউ রাসেল : টাঙ্গাইলের গোপালপুরে এক মাদকাসক্ত পুত্রকে পুলিশে সোপর্দ করেছেন মা। ভ্রাম্যমান আদালতে পুত্রকে ২বছরের কারাদ- দিয়ে আদালতে সোপর্দ করেছে। রোববার ঘটনাটি ঘটেছে গোপালপুর পৌরশহরের সূতী পলাশ গ্রামে। মা সায়েলা বেগম (৫৫) জানান, গোপালপুর পৌরশহরের সূতী পলাশ গ্রামের প্রয়াত খোকা মিঞা ও তার একমাত্র ছেলে মো. কালাম (৪০)। সে সূতী কালিবাড়ি বাজারের পান বিক্রির বড় ব্যবসায়ী ছিল। পান ব্যবসায় টাকায় তাদের অভাবের সংসারে সচ্ছলতা ফিরে আসছিল। কিছু খারাপ লোকের নজর পড়ে কালামের ব্যবসা ও টাকার উপর। তাদের পাল্লায় পড়ে কালাম ৩বছর আগে হেরোইনের সেবনে আসক্ত হয়ে পড়ে। অনেক বুঝিয়ে তাকে নিয়ন্ত্রনে আনা যায়নি। কালাম নেশা করার কারনে বউ নাতিকে নিয়ে বাপের বাড়ি চলে গেছে। তাই ছেলেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা।
মা সায়েলা বেগম, অন্যের বাড়িতে গৃহপরিকাজ করে এখন জীবিকা নির্বাহ করছেন। ছেড়া কাপড়ের আচল দিয়ে অশ্রুভেজা দু’ নয়ন মুছতে মুছতে বলেন, আল্লাহ যেন আমার একমাত্র পুত্র কামালকে ভালো করে পাঠায়। আমি আল্লাহর কাছে দোয়া করছি, আপনারাও তার জন্য দোয়া করবেন।
গোপালপুর থানার এসআই মোকছেদুল আলম জানান, ‘রোববার দুপুরের দিকে তাকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাসূমুর রহমান মোবাইল কোট আইনে আইনে মো. কালামকে ২বছরের বিনাশ্রম কারাদ- দিয়ে সন্ধ্যার দিকে জেল হাজতে পাঠান।’
মাদকসেবি কামাল বলেন, ‘আমি ভালো হয়ে সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে চাই। খারাপ বন্ধুদের পাল্লায় পড়ে এখন আমার এ অবস্থা। আমি মাদক বিক্রেতাদের আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।’