| |

ঈশ্বরগঞ্জে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার স্বজনদের হত্যার অভিযোগ

ঈশ্বরগঞ্জ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ থানার পুলিশ গতকাল সোমবার উপজেলার বাঘবেড় গ্রাম থেকে ঝুমা (২০) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছেন। গৃহবধূর স্বজনদের অভিযোগ ঝুমাকে হত্যা করে তার লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে রোববার রাতে উপজেলার মগটুলা ইউনিয়নের বাঘবেড় গ্রামে। জানা যায়, দু বছর পূর্বে বাঘবেড় গ্রামের আবদুল আজিজের পুত্র রুখনের সাথে পার্শ্বের গ্রাম বাঘবেড় আব্দুলাপুর মাইজউদ্দিনের কন্যা ঝুমার বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর ঝুমার স্বামী দুবাই চলে যায়। রোবার রাতে স্থানীয় এলাকাবাসী কাছথেকে ঝুমার মৃত্যুর সংবাদ শুনে তার পরিবারের লোকজন ঝুমার স্বামীর বাড়ির এসে বসতঘরের আড়ার সাথে ঝুমার মরদেহ ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। এ সময় ঝুমার শ্বশুর বাড়িতে কোন লোকজন বাড়িতে না থাকায় তাদের ধারনা ঝুমাকে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রেখে বাড়ির লোকজন পালিয়ে গেছে। খবর পেয়ে ঈশ্বরগঞ্জ থানার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে । নিহতের বাবা মাইজ উদ্দিন বড় বোন সুমি আক্তার চাচা সিরাজুল ইসলাম জানায় ঝুমা তার শ্বশুর বাড়িতে বিভিন্ন সময় নির্যাতনে শিকার হয়। তাদের দাবী ঝুমাকে হত্যা করে তার লাশ ঝুলিয়ে রেখে বাড়ির সবাই পালিয়েছে। এ ব্যপারে ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি বদরুল আলম খান জানান ঝুমার মৃত্যুর সঠিক কারন জানতে লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।