| |

ভালুকায় ভিজিএফের চাল বিতরণে অনিয়ম, সংঘর্ষ আহত ৮

আঞ্চলিক প্রতিনিধি : ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অতিদরিদ্রদের জন্য সরকারের দেওয়া বিশেষ ভিজিএফের চাল বিতরণের অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে ময়মনসিংহের ভালুকায়। তাছাড়া, ওই বিশেষ ভিজিএফরে কার্ড বিতরণ নিয়ে দু’পক্ষের মাঝে ঘটে যাওয়া সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে আট জন আহত হয়েছে। আহতদের মাঝে আজমল হোসেন খাঁ, বকুলা খাতুন, কুলসুম আক্তার ও আকবর হোসেনকে ভালুকা ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভিজিএফের কার্ড বিতরণ নিয়ে সংঘর্ষের ওই ঘটনাটি উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের ভাটগাঁঁও গ্রামের। অপরদিকে ওই মারামারির ঘটনার জের ধরে এক পক্ষের বাড়ি, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কমিউনিটি ক্লিনিকের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা।
উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের মেম্বার বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা হারুন-অর-রশিদ ও সাইফুল ইসলাম জানান, বিধি মোতাবেক স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দদের নিয়ে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে অতিদরিদ্রদের জন্য সরকারের দেওয়া বিশেষ ভিজিএফের তালিকা প্রণয়নের কথা থাকলেও ভিজিএফ বিতরণের দায়িত্বে থাকা উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়ন পরিষদের সচিব আবদুল খালেক তা আমলে নেনটি। ভিজিএফের তালিকা প্রণয়নের বিষয়টি জানানো হয়নি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের। তাছাড়া, আগের তালিকা অনুসারে চাল বিতরণের কথা বলা হলেও চাল পাচ্ছেনা তালিকাভূক্ত অনেক অতিদরিদ্র মানুষ এবং মাথা পিছু ২০ কেজি করে চাল দেওয়ার কথা থাকলেও তা দেওয়া হচ্ছেনা। বিষিয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে বলে তারা জানান।
ইদুৃল ফিতরের বিশেষ ভিজিএফ কার্ডধারী ভরাডোবা গ্রামের রফিকুল ইসলাম, মর্জ্জিনা আক্তারসহ অন্যান্যরা স্থানীয় সংবাদকর্মীদের জানান, তাদেরকে ২০কেজি করে চাল দেওয়ার কথা থাকলেও দেওয়া হয়েছে মাত্র ১৬ কেজি করে। ভালুকা হাসিপাতালে চিকিৎসাধীন আকবর হোসেন জানান, তিনি হাসপাতালে ভর্তি থাকায় তার বাড়ির বিদুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নের বিষয়ে পল্লী বিদুৎ সমিতিকে এখনো জানানো হয়নি।
ইউনিয়ন পরিষদ সচিব আবদুল খালেক জানান, আমি এলাকার কাউকে চিনিনা। ভিজিএফের কার্ড বিতিরণ করেছেন বর্তমান ও নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম তরফদার। কথা হলে ইউপি চেয়ারম্যান শাহ আলম তরফদার জানান, উত্থাপিত অভিযোগ অবান্তর। তদারকী অফিসার নিজে উপস্থিত থেকে চাল বিতরণ করছেন। ওই ইউনিয়নের চাল বিতরণের তদারকীর দায়িতে থাকা উপজেলা একাডেমীক অফিসার সালাউদ্দিন জানান, ওজনে কাউকেই কম দেওয়া হচ্ছেনা। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল আহসান তালুকদার জানান, ভিজিএফের তালিকা প্রণয়নে সমন্বয়হীনতার বিষয়টি তাকে জানানো হয়েছে। কিন্তু ওজনে কম দেওয়ার বিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি।