| |

দেওয়ানগঞ্জে চাঁদা না পেয়ে মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি ঘর ও দোকান ভাংচুর

জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে আওয়ামীগ নেতাকে চাঁদা না দেয়ায় দোকান পাট ও মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি ঘর ভাংচুর করা হয়েছে। এঘটনায় পুলিশের ভয়ে উল্টো পালিয়ে বেড়াচ্ছে ওই মুক্তিযোদ্ধা পরিবার ও ব্যবসায়ীরা।
ঘটনাটি ঘটেছে ৫ জুলাই মঙ্গলবার বিকালে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরাবাদ ইউনিয়নের কলাকান্দা বাজারে ।
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রতি বছর ঈদ বা বিশেষ দিনে কলাকান্দা বাজারের ব্যবসায়ীদের চাঁদা দিতে হয়। বাহাদুরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও প্রভাবশালী আল আমিন তার তার সহযোগীদের এ চাঁদা দিতে হয়। চাঁদা না দিলে নির্যাতন করা হয় সাধারণ ব্যবসায়ীদের ।
ঘটনার দিন বিকালে আল আমিন তার সহযোগীরা বাজারের ব্যবসায়ীদের নিকট চাঁদা নিতে যায়। চাঁদাবাজরা স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফার ( গোলা) দোকানেও চাঁদা চায়। মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা (গোলা) চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় তার ৭ টি দোকান ভাংচুর করে চাঁদাবাজরা। এসময় বাজার সংলগ্ন অবস্থিত ওই মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতেও হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করে তারা। এছাড়াও মাধু সরকার নামের এক সার ও কীটনাশক ব্যবসায়ীর দোকানও ভাংচুর সহ লুটপাট করা হয়। এদের বাধা দিতে গিয়ে হামলার শিকার হয় ১৩ জন। এঘটনায় ৫ দিন যাবৎ কোন ব্যবসায়ী তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারছে না বলে অভিযোগ করেছেন বাজারের ব্যবসায়ীরা। উল্টো চাঁদাবাজদের দায়ের করা মামলায় পালিয়ে বেড়াচ্ছে ওই মুক্তিযোদ্ধা পরিবার সহ এলাকার অর্ধশতাধিক সাধারণ মানুষ। এব্যাপারে মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা ( গোলা) বলেন , চাঁদা না দেয়ায় আমাকে ও আমার পরিবারকে হেনস্থা করা হচ্ছে। আমি এর উপযুক্ত বিচার চাই। স্থানীয় ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান হবি জানান, ওই চাঁদাবাজদের ভয়ে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। আওয়ামীলীগের নাম ভাঙিয়ে তারা এলাকায় যাচ্ছেতাই করে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে দেওয়ানগঞ্জ থানার ওসি মোস্তাছিনুর রহমান জানান, ঘটনাটি শুনেছি । ওই মুক্তিযোদ্ধা অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।