| |

বাকৃবিতে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৬ উপলক্ষে র‌্যালী, সেমিনার, ও মাছের পোনা অবমুক্তকরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ঃ বর্তমানে দেশে সর্বমোট মাছের উৎপাদন দাঁডিয়েছে ৩৬.৮৪ লক্ষ মেট্রিক টন। বিশ্বের মানচিত্রে আজ মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশ চতুর্থ স্থান অর্জন করেছে।এদেশের মানুষের প্রাণীজ আমিষের চাহিদার শতকরা ৬০ ভাগ পাওয়া যায় মাছ থেকে। মৎস্য সেক্টরের সাথে সরাসরি জড়িত এ দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ১১ ভাগেরও বেশী মানুষ। এসব তথ্য উপস্থাপন করেন মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ কর্তৃক আয়োজিত ‘জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৬’ উপলক্ষে আজকের সেমিনারে দেশের বিশিষ্ট মৎস্য বিজ্ঞানীগণ।
‘জল আছে যেখানে মাছ চাষ সেখানে’ স্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (বাকৃবি)তে সোমবার (২৫ জুলাই ২০১৬) জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৬ উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচীর মধ্যে ছিল মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ কর্তৃক আয়োজিত র‌্যালী,সেমিনার ও মাছের পোনা অবমুক্তকরণ ।
সকাল ১১টায় এ উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদ থেকে শুরু হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর প্রদক্ষিণ করে ব্রহ্মপুত্র নদে গিয়ে শেষ হয় এবং মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলরের নেতৃত্বে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ করা হয়। মাছের পোনা অবমুক্তকরণ শেষে মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড.সুভাষ চন্দ্র চক্রবর্তী এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ আলী আকবর, বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট এর মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদ এবং মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের সিনিয়র শিক্ষকবৃন্দ।
পরে মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের কনফারেন্স রুমে প্রফেসর ড.একেএম নওশাদ আলম এর পরিচালনায় ‘বাংলাদেশের মৎস্য সম্পদ ও বাকৃবি মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের ভূমিকা ও করণীয়’ শীর্ষক সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন ,ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর ড. এস. ডি চৌধুরী, মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর ড.সুভাষ চন্দ্র চক্রবর্তী,বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট এর মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদ , ড.খলিলুর রহমান, অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস-চ্যান্সেলর বলেন, মাছ উৎপাদনে আমাদের সাফল্য ঈর্শণীয়, আমাদের পুষ্টির চাহিদা পূরণে অন্যতম এ সম্পদকে রক্ষা করতে হবে এর উৎপাদন আরও বাড়াতে হবে।
অনুষ্ঠানে বিভিন্ন মাৎস্য বিজ্ঞান অনুষদের শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।