| |

ইউনাইটেডের নাটকীয় জয়

স্পোর্টস ডেস্ক : উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শুরুটা ভালো না হলেও প্রিমিয়ার লিগে জয়ের ধারাতেই আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। সাউথ্যাম্পটনের মাঠে শুরুতে পিছিয়ে পড়লেও দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে জয় তুলে নিয়েছে লুই ফন খালের দল।
রোববার রাতে উত্তেজনায় ঠাসা ম্যাচে ৩-২ ব্যবধানে জিতেছে ইউনাইটেড। বিজয়ীদের পক্ষে জোড়া গোল করেন আন্থোনি মাস্সিয়াল, অন্য গোলটি হুয়ান মাতার। সাউথ্যাম্পটনের গোল দুটি করেন গ্রাজিয়ানো পেল্লে।
গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে পিএসভি আইন্দহোভের মাঠে ২-১ গোলে হারে ইউনাইটেড।
সে হতাশা কাটানোর লক্ষ্যে প্রতিপক্ষের মাঠে এদিন খেলতে নামা ইউনাইটেড উল্টো ম্যাচের শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে। প্রথম থেকেই তাদের রক্ষণে চাপ সৃষ্টি করা সাউথ্যাম্পটন গোল পেয়ে যায় ত্রয়োদশ মিনিটে। ডি বক্সের মধ্যে থেকে ডান পায়ের কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান ইতালিয়ান স্ট্রাইকার পেল্লে।
পিছিয়ে পড়ার ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই ইউনাইটেডের রক্ষণে আরেকটি জোরালো আঘাত। তবে পেল্লের প্রচেষ্টা পোস্টে বাধা পেলে এ যাত্রায় বেঁচে যায় অতিথিরা।
এরপর দ্রুতই নিজেদের সামলে নিয়ে আক্রমণে উঠতে থাকে ইউনাইটেড। তবে প্রতি আক্রমণে সাউথ্যাম্পটনও পিছিয়ে ছিল না।
এরই মাঝে ২৬তম সমতায় ফেরার দারুণ সুযোগ পায় ইউনাইটেড। কিন্তু মাতার ক্রসে খুব কাছ থেকে লক্ষ্যভ্রষ্ট হেড করেন মেমফিস ডিপাই।
কাক্সিক্ষত গোলের জন্য অবশ্য খুব বেশি অপেক্ষা করতে হয়নি ইউনাইটেডকে। প্রতিপক্ষের রক্ষণের ভুলে সতীর্থের পা ঘুরে ডি বক্সের মধ্যে বল পান মাস্সিয়াল। এক জনকে কাটিয়ে ডান পায়ের শটে বল জালে জড়ান কদিন আগে মোনাকো থেকে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আসা ফরাসি এই ফরোয়ার্ড।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই এগিয়ে যায় ইউনাইটেড। এবারের গোলদাতাও মাস্সিয়াল। ৫০তম মিনিটের এই গোলের পেছনেও যথেষ্ট ভুল ছিল সাউথ্যাম্পটন রক্ষণভাগের।
জাপানিজ ডিফেন্ডার মায়া ইয়োশিদা এদিক-ওদিক না দেখে গোলরক্ষককে ব্যাকপাস দেন, বল পেয়ে যান মাস্সিয়াল। কোনো তাড়াহুড়ো নয়, ঠাণ্ডা মাথায় বল জালে জড়ান ১৯ বছর বয়সী এই খেলোয়াড়।
৬৮তম মিনিটে স্কোরলাইন ৩-১ করে জয়ের সম্ভাবনা জোরালো করেন ইউনাইটেডের স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড মাতা।
ম্যাচের নাটকীয়তার অবশ্য তখনও কিছুটা বাকি ছিল। ৮৬তম মিনিটে ব্যবধান কমিয়ে লড়াইয়ে নতুন করে উত্তেজনা ফেরান পেল্লে। ডান দিক থেকে সাদিও মানের দারুণ ক্রসে অনেকটা লাফিয়ে উঠে হেড করে বল জালে জড়ান তিনি।
বাকি সময়ে সমতায় ফেরার ভালো একটি সুযোগ পায় স্বাগতিক দল। তবে তারা তা কাজে লাগাতে না পারায় জয়ের আনন্দে মাঠ ছাড়ে রুনিরা।
এই জয়ে ৬ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে ইউনাইটেড। ১৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি।
দিনের অন্য ম্যাচে নরউইচ সিটির সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করা লিভারপুল ৮ পয়েন্ট নিয়ে ত্রয়োদশ স্থানে আছে। সমান পয়েন্ট পেলেও গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে একাদশ স্থানে আছে নরউইচ।