| |

কালিহাতীতে কার নির্দেশে গুলি, জানতে চায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে কার নির্দেশে গুলি করা হয়েছে তা জানতে চেয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান।
গতকাল সোমবার দুপুরে কালিহাতীতে পুলিশের গুলিতে নিহত চারজনের স্বজনদের সমবেদনা জানাতে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ কথা বলেন।
ড. মিজানুর রহমান বলেন, ‘সাজানো কোনো গল্পের অবতারণা করা হলে তা প্রত্যাখ্যান করা হবে। মানুষের মৃত্যুর বদলে কাউকে প্রত্যাহার করে নেওয়াটা কোনো শাস্তি নয়। অন্যায়ভাবে যারা সাধারণ মানুষের উপর গুলিবর্ষণ করেছে তারা ফৌজদারি অপরাধী হিসেবে চিহ্নিত হতে পারে। কার নির্দেশে একটি শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে কি কারণে গুলি করে জীবন কেড়ে নেওয়া হলো, কর্তৃপক্ষকে জবাব দিতে হবে। গঠিত তদন্ত প্রতিবেদনে সন্দেহ হলে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন নতুন করে তদন্ত করতে বাধ্য হবে।’
এর আগে তিনি টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে নির্যাতিত মহিলার সাথে কথা বলেন এবং তার চিকিৎসার খোঁজখবর নেন। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ একটি সমাবেশে পুলিশ যেভাবে গুলি চালিয়েছে, তা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। অস্ত্র হাতে থাকলেই অযৌক্তিকভাবে গুলি করা হলে, পুলিশ ও সন্ত্রাসীর সাথে কোনো তফাৎ থাকে না।
উল্লেখ্য, গত ১৫ সেপ্টেম্বর কালিহাতী উপজেলার সাতুটিয়া গ্রামের রফিকুল ইসলাম ও তার সহযোগীরা স্থানীয় আলামিন ও তার মাকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন চালায়। এ ঘটনার প্রতিবাদে ও জড়িতদের শাস্তির দাবিতে গত শুক্রবার কালিহাতীতে বিক্ষোভ মিছিল বের করলে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ ঘটে। এতে পুলিশের গুলিতে চারজন নিহত হয়।