| |

মুক্তাগাছায় মুক্তিযোদ্ধাকে মারধরকারী শিবির নেতার গ্রেফতার দাবি পরিবারের

স্টাফ রিপোর্টার : মুক্তাগাছা উপজেলার হরিপুর দেওলীর ৭১ এর রণাঙ্গনের বীর সেনানী আবুল হোসেনকে মারধরকারী চিহিৃত শিবির নেতার গ্রেফতার দাবি করেছেন তার পরিবার। গতকাল শনিবার দুপুরে স্থানীয় প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ দাবি জানানো হয়।
পরিবারের সদস্যরা লিখিত বক্তব্যে বলেন মুক্তাগাছা উপজেলার হরিপুর দেওলী গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন ইউনিয়ন পরিষদের মুক্তিযোদ্ধা কার্যালয়ে যাওয়ার জন্য বুধবার সকালে বাড়ি থেকে বের হন। যাওয়ার সময় তার বড় ভাইয়ের সাথে জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে বক্্রবাড়ি গ্রামের শিবির নেতা মহসীন আলীর ছেলে মিন্টু, জামায়াত নেতা সাইফুল ইসলাম, লাল মামুদ লালুসহ কয়েকজন দূষ্কৃতকারী তার ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তাকে বেদড়ক পিটিয়ে দাঁত ভেঙ্গে দেয়। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় ভর্তি করা হয় মুক্তাগাছা হাসপাতালে । এ ঘটনায় ওই দিনই ঘটনার সাথে জড়িত জামায়াত-শিবির নেতাদের বিরুদ্ধে মুক্তাগাছা থানায় মামলা দায়ের করা হয়। ঘটনার কয়েকদিনেও থানা পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার না করায় আহত মুক্তিযোদ্ধার পরিবার এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন। প্রতিদিনই আসামীরা তাদেরকে নানাভাবে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করছেন তার পরিবার। তারা ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান। সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়েন আহত মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেনের ছেলে আশরাফুল আলম।
উল্লেখ্য ঘটনার সাথে জড়িত এজাহারভূক্ত আসামী শিবির নেতা মিন্টু বোমা হামলার আসামী হয়ে কয়েকদির আগে জামিনে জেল থেকে বের হন।
মুক্তাগাছা থানার ওসি আখতার মোর্শেদ বলেন, মামলা নেওয়ার পর আসামীদের গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে চেষ্টা চালানো হচ্ছে।