| |

ত্রিশালে অপহরনের ৭দিন পরও উদ্ধার হয়নি কলেজ ছাত্রী কামনা রানী দাস

রফিকুল ইসলাম শামীমঃ ময়মনসিংহের ত্রিশালে অপহরনের ৭দিন পরও উদ্ধার হয়নি কলেজ ছাত্রী কামনা রানী দাস (১৬)। পুলিশ মামলা নিলেও অপহরন কারীদের গ্রেপ্তার ও অপহিতাকে উদ্ধারে গরিমসি করছে বলে অভিযোগ করেছে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ।
জানাযায়-গত ২৩ জুলাই উপজেলার আমিরাবাড়ী ইউনিয়নের কাশীগঞ্জ বাজারের চায়ের দোকানদার সংখ্যালঘু মানিক চন্দ্র দাসের কলেজ পড়–য়া মেয়ে কামনা রানী দাসকে একই এলাকার রফিকুল ইসলামের বখাটে ছেলে রাকিব মিয়া দলবল নিয়ে অপহরন করে। এই ঘটনায় ২৩ জুলাই অপহিতার পিতা মানিক চন্দ্র দাস বাদী হয়ে ত্রিশাল থানায় রাকিবের বিরুদ্ধে অপহরনের মামলা দায়ের করে। মামলা রুজু হলেও অপহরনের ৭ দিন পরও অপহিতা কামনা রানীকে আজো পুলিশ উদ্ধার করতে পারেনি।
এব্যাপারে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্ট্রাান ঐক্য পরিষদ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও ত্রিশাল উপজেলা শাখার সভাপতি গৌরাঙ্গ রায় ও সাধারন সম্পাদক গনেজ সরকার সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্য কলেজ ছাত্রী কামনা রানী দাসকে অবিলম্বে উদ্ধার ও অপহরনকারীদের গ্রেপ্তারের জোড় দাবী জানিয়েছেন।