| |

নান্দাইলে ২ লাখ টাকা মূল্যের সরকারী মেহগনি গাছ কর্তনের চেষ্টা

নান্দাইল  প্রতিনিধি ঃ ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার ৪নং চন্ডীপাশা ইউনিয়ন পরিষদের সামনে (খামারঁগাও) পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের নিজস্ব ভূমিতে রোপিত প্রায় ২ লাখ টাকা মূল্যের ২টি মেহগনি গাছ ১লা আগস্ট সোমবার সকালে ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ আব্দুর রশিদের নেতৃত্বে স্থানীয় ৫/৬ জন কাঠ মিস্ত্রী গাছ কাটা শুরু করেন। বিষয়টি জানতে পেরে নান্দাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ ফজলূল হক ভূইঁয়া দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছ কাটার বিষয়টি দেখতে পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শাহনুর আলমকে জানান।
এছাড়া ৪নং চন্ডীপাশা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ এমদাদুল হক ভূইঁয়া নতুন রাস্তা করা হবে বলে গাছগুলো কাটা হচ্ছিল বলে জানান। ইউএনও এভাবে গাছ কাটার কোন বিধান নেই জানিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে গাছ কাটা বন্ধ করে দেন। ইতিমধ্যে একটি গাছের প্রায় অর্ধেক কাটা হয়ে যায়। গাছ কাটার বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে স্বাস্থ্য সেবা উন্নয়ন কমিটির অন্যতম সদস্য মোঃ এনামুল হক বাবুল, আলম ফরাজী, রমেশ কুমার পার্থ ও মোহনা টেলিভিশনের প্রতিনিধি আবুল হাসেম ঘটনাস্থলে গিয়ে সরকারী গাছ কাটার বিষয়টি দেখতে পেয়ে প্রশাসনের বিভিন্ন স্থানে সেলফোনে অবহিত করেন।
পরিবার পরিকল্পনা অফিসার মোঃ বদরোদুজ্জা জানান এই দুইটি মূল্যবান গাছ পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের। এখনও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের জায়গায় পাকা খুটি বসানো আছে বলে জানান। এই গাছ এভাবে কেটে নেওয়ার কোন বিধান নেই। তিনি বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তপক্ষ সহ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে আলোচনা করে জিডি/ মামলা করবেন বলে জানান। সর্বশেষ জানাগেছে প্রভাবশালী মহলের চাপে পরিবার পরিকল্পনা অফিসার জিডি করতে ব্যর্থ হয়েছেন।
তবে ইউএনও মোঃ শাহনুর আলম জায়গাটির পুনরায় মাপ নেওয়ার জন্য সহকারী কমিশনার ভূমিকে দায়িত্ব দিয়েছেন বলে জানান। স্বাস্থ্যসেবা কমিটির সদস্যবৃন্দ জানান এভাবে গাছ কাটা শুরু হলে সারা নান্দাইলে সরকারী গাছ কাটার মচ্ছপ শুরু হবে। তারা এই ঘটনার সাথে যারাই জড়িত এবং নির্দেশদাতা এদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট মামলা নথিভূক্ত করার জোর দাবী জানিয়েছেন।