| |

মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা বাতিলে রিট আবেদন খারিজ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ তুলে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষার ফল বাতিল করে আবার পরীক্ষা নেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে করা রিট আবেদনটি খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।
গতকাল সোমবার সকালে বিচারপতি নাঈমা হায়দার ও বিচারপতি জে এন দেব চৌধুরীর অবকাশকালীন বেঞ্চ আবেদনের শুনানি করে এই আদেশ দেয়।
ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ‘ফাঁস হয়েছে’ দাবি করে রোববার সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই আবেদন করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইউনুস আলী আকন্দ।
আবেদনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন সচিব ও স্বাস্থ্য সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ও পরিচালকসহ ১১ জনকে বিবাদী করা হয়েছিল।
আদালতে শুনানিতে রিট আবেদনকারী ইউনুস আলী আকন্দ নিজেই ছিলেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী জিনাত হক।
আদেশের পর জিনাত হক বলেন, “ভর্তি পরীক্ষার ফল যাতে প্রকাশ না করা হয় রুলে সে বিষয়েও নির্দেশনা চাওয়া হয়। আদালত রিটটি খারিজ করে দেওয়ায় মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজগুলোতে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু করতে আইনগত কোনো বাধা নেই।
গত শুক্রবার সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজগুলোর সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা হয়। এতে অংশ নেন ৮৩ হাজার শিক্ষার্থী। রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ফল প্রকাশ করে।
এই পরীক্ষার ‘প্রশ্নপত্র ফাঁসে’ জড়িত থাকার অভিযোগে কয়েকজনকে গ্রেপ্তারের পর পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে শনিবার দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করে পরীক্ষার্থীরা। বিএনপিও পরীক্ষা বাতিল করে নতুন করে পরীক্ষা নেওয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছে।
মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা বাতিল ও নতুন পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে গতকাল সোমবারও শহীদ মিনারে অবস্থান নিয়েছেন শতাধিক ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থী।