| |

নান্দাইলে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে নিহত ২ জঙ্গির লাশ মর্গে

নান্দাইল  প্রতিনিধিঃ  ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চন্ডীপাশা ইউনিয়নের ঘোষপালা ডাংরী নামক স্থানে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ হাইওয়ে সড়কের পাশে বৃহস্পতিবার (৪ঠা আগস্ট) দিবাগত রাত ১০.৩০ মিনিট থেকে ১১.৩০ মিনিট পর্যন্ত স্থায়ী বন্দুক যুদ্ধে কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠে জঙ্গি হামলার সাথে জড়িত এবং ইতিপূর্বে র‌্যাবের হেফাজতে থাকা (চিকিৎসাধীন) অবস্থায় তাকে নিয়ে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় যাবার পথে এই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা দুটি মোটর সাইকেল যোগে (একটি মোটর সাইকেলে প্রেস লিখা ছিল) এসে র‌্যাবের গাড়ি বহরে হামলা চালিয়ে আসামী ছিনিয়ে নেবার চেষ্টাকালে এই বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এসময় ২ জঙ্গি গুলি বিদ্ধ হয়। এদিকে গুলির শব্দে পাশের গ্রাম ডাংরী, ঘোষপালা, বারুইগ্রাম, নান্দাইল চৌরাস্তা এলাকার মানুষের মাঝে রাতভর উদ্বেগ, উৎকন্ঠা এবং আতংক বিরাজ করতে থাকে। নান্দাইলে কর্মরত মিডিয়া কর্মী ও ময়মনসিংহ জেলা সদর থেকে রাতেই বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের সাংবাদিকরা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে তথ্য সংগ্রহ করার চেষ্টা করে। রাত ২টার দিকে র‌্যাব ও পুলিশের গাড়ি নান্দাইল হাসপাতালের জরুরী বিভাগে গুলি বিদ্ধ ২ জনকে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন। বারুইগ্রাম এলাকার যুবক শফিকুল ইসলাম, রতন মেম্বার, মোঃ মঞ্জুরুল হক জানান তারা ২০/২৫টি গুলির শব্দ শুনতে পেয়েছেন। রাতভর হাইওয়ে রাস্তায় চলাচলকারী যানবাহন চেক করা হয় এবং চলাচল সীমিত করা হয়। ঘটনাস্থলের আশেপাশে রাতে কোনলোকজনকে পুলিশ ভিড় করতে দেয় নাই। ঘটনাস্থলের পূর্ব ও পশ্চিম পাশে প্রায় ২ কিলোমিটার এলাকায় স্থানে স্থানে পুলিশ ও র‌্যাবের গাড়ি দাড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। রাত ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলের পূর্ব পাশে ১ কিলোমিটার দুরে বারুইগ্রাম জামিয়া আরাবিয়া আহাদিয়া মাদ্রাসায় পুলিশ ও র‌্যাব ব্যাপক তল্লাশী পরিচালনা করে। প্রতিটি আবাসিক কক্ষে তল্লাশী চালিয়ে ছাত্র ও শিক্ষকদের ছবি উঠানো হয়। এসময় কোন বহিরাগত আছে কিনা তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয় এবং শিক্ষকদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তবে কাউকে আটক করা হয়নাই। মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা জালাল উদ্দিন তল্লাশী চালানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। অপরদিকে শুক্রবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত উক্ত ঘটনায় নান্দাইল মডেল থানায় মামলা হয় নাই। তবে অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতাউর রহমান জানান শুক্রবার রাতে উক্ত বিষয়ে সুনির্দিষ্ট মামলা দায়ের করা হবে। র‌্যাবের পক্ষ থেকে গুলি বিদ্ধ ২ জঙ্গির লাশ নান্দাইল মডেল থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করলে থানা পুলিশ উক্ত লাশ ২টি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে ময়না তদন্তের জন্য কঠোর পুলিশি পাহারায় পাঠিয়ে দিয়েছেন। এই প্রতিনিধি বিকাল ৩টায় পুনরায় ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পান এলাকায় শুনশান নীরবতা লক্ষ্য করেন এবং র‌্যাবের বেশ কয়েকটি গাড়ি ও র‌্যাবের সদস্যদের কর্তব্যরত অবস্থায় পাওয়া যায়।