| |

বিপিএল ময়মনসিংহ পর্বের দ্বিতীয় খেলা শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রকে ২-০ গোলে হারিয়েছে ফেনীর সকার ক্লাব

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গতকাল শনিবার বিকেলে ময়মনসিংহ বিভাগীয় শহরের রফিক উদ্দিন ভূঞা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বিপিএল এর চতুর্থ রাউন্ডের দ্বিতীয় খেলায় ফেনীর সকার ক্লাব ২-০ গোলে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রকে হারিয়েছে। প্রথমার্ধের ৩৫ মিনিটে সকার ক্লাব ফেনীর বিদেশী খেলোয়াড় ২৯ নাম্বার জার্সি পরিহিত নিম টুয়াম ফ্রাংক (ঘানা) ১টি গোল করে সকার ক্লাব ফেনীকে এগিয়ে নিয়ে যায়। পরে খেলার ৮০ মিনিটে সকার ক্লাব ফেনীর পক্ষে দ্বিতীয় গোলটি করেন ৯ নাম্বার জার্সি পরিহিত খেলোয়ার চমরিন রাখাইন। এদিকে প্রথমার্ধে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র বার বার আক্রমণ করেও ৩টি গোল করার সুযোগ নষ্ট করে। দ্বিতীয়ার্ধেও  অনেক গোলের সুযোগ পেয়েও তারা গোল করতে পারেনি।
জেবি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে টানা চতুর্থ হারের মুখ দেখলো শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র।
খেলার শুরুতে একটি সংঘবদ্ধ আক্রমণের পর বক্সের ওপর থেকে মিডফিল্ডার জামাল ভূঁইয়ার জোরালো শট ক্রসপিসে লেগে ফেরত আসার পর থেকেই শুরু হয় রাসেলের হারের পালা। গোল তাদের জন্য হয়ে দাঁড়ায় সোনার হরিণ। একের পর এক আক্রমনের পরও ফিনিশিংয়ের অভাবে গোলের দেখা পায়নি রাসেল ক্রীড়াচক্র। ৩৩ মিনিটে রাইট ব্যাক নাসিরুল ইসলামের ক্রসে ফরোয়ার্ড রুম্মান আহমেদ বল পেয়েছিলেন সুবিধাজনক অবস্থানে কিন্তু তিনি বল ঠিকমতো হেড করতে পারেননি। পরের মিনিটেই কাউন্টার অ্যাটাকে এগিয়ে যায় সকার ক্লাব ফেনী। দ্রুত গতিতে বল নিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েন ফরোয়ার্ড আকবর হোসেন রিদন। নেন একটি ডান পায়ের শট। রাসেল ক্রীড়াচক্রের গোলরক্ষক লিটন ড্রাইভ দিয়ে বল ঠেকিয়ে দিলেও রিবাউন্ডার এসে পড়ে ফাঁকায় দাঁড়ানো নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড টুয়াম ফ্রাংকের সামনে। জোরালো গ্রাউন্ডারে তিনি বল পাঠিয়ে দেন পোস্টে। পরের মিনিটে সমতা আনার সুযোগ পেয়েছিল রাসেল ক্রীড়াচক্র। আবারও নাসিরের ক্রস এবং একই জায়গায় বল পেয়ে ছিলেন রুম্মন। এবার হেড করলে বল চলে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে মাঠের বাইরে।
বিরতির পর সমতা আনতে ব্যর্থ হন ইথিওপিয়ান ফরোয়ার্ড ফিকরু টেফেরা। ডান প্রান্ত থেকে একক প্রচেষ্টায় বল নিয়ে ভেতরেও ঢুকে পড়েন ফরোয়ার্ড সাখাওয়াত হোসেন রনি। মাপা ক্রসও করেছিলেন। ফিকরু বল বুক দিয়ে নামিয়ে প্লেসিং শট করলেও তা হয় লক্ষ্যভ্রষ্ট।
শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্র সমতা আনতে যখন মরিয়া ঠিক তখনই হজম করে বসে দ্বিতীয় গোল। ৮১ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে ওয়ান-টু করে রাসেল এর ডিফেন্স ভেদ করেন শাহরান হাওলাদার ও চমরিন রাখাইন। শাহরানের ফরোয়ার্ড পাসে চমরিন রাখাইন পরাস্ত করেন এগিয়ে আসা শেখ রাসেল গোলরক্ষককে। নিশ্চিত হয়ে পড়ে রাসেল ক্রীড়াচক্রের টানা চতুর্থ পরাজয়। গতকাল খেলায় রেফারী ছিলেন আজাদ রহমান। সহকারী রেফারী ছিলেন ইকবাল ও নুরুজ্জামান। দীর্ঘ দিন পর নতুন করে নির্মিত রফিক উদ্দিন ভুইয়া স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বিপিএল এর উ™ে¦াধনী দিনের খেলার চেয়ে দর্শক সমাগম কিছু কম হলেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক দর্শক প্রচন্ড রোদ ও গরম উপেক্ষা করে খেলা দেখেন। নারী দর্শকও ছিলেন উল্লেখ করার মত। উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের পরিচালনায় এবং জেলা ক্রীড়া সংস্থা, ময়মনসিংহ ও ময়মনসিংহ জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সহযোগিতায় ময়মনসিংহে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিপিএল। এবারের আসরে ১২টি দল অংশ নিচ্ছে। এই ফুটবল আসরকে ঘিরে ময়মনসিংহের ক্রীড়াঙ্গনে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা সৃস্টি হয়েছে। আজ রববার (৭ আগস্ট) বিকাল ৪টায় একই স্টেডিয়ামে খেলা অনুষ্ঠিত হবে টিম বিজেএমসি বনাম মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।