| |

ময়মনসিংহে গলা টিপে হত্যা করে বাবা তার দুই শিশু সন্তানকে, বাবা গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার : স্ত্রী ও শ^াশড়ির সাথে ঝগড়া করে বাবা তার দুই শিশু সন্তানকে গলা টিপে হত্যা করেছে। লোমহর্ষক এ ঘটনাটি ঘটেছে ময়মনসিংহের সদর উপজেলার সুহিলা গ্রামে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে একটি পুকুর থেকে সহোদর ওই দুই শিশু সন্তানের লাশ উদ্ধার করেছে কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ। ঘটনার সাথে জড়িত বাবা ওয়ালী উল্লাহকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
সদর উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের সুহিলা গ্রামের ওয়ালী উল্লাহর দুই শিশু সন্তান পাঁচ মাসের ঐশি আক্তার ও ৬ বছরের অপর শিশু রুমান আলী। সোমবার রাতে ঐশি আক্তার তার মা রোকসানা খাতুনের সাথে আর রুমান আলী তার দাদী ছালমা খাতুনের সাথে ঘুমাতে যায়। সুকৌশলে বাবা ওয়ালী উল্লাহ ওই রাতের ১১টার পর কোন এক সময় তার ঘুমন্ত দুই শিশু সন্তানকে বাইরে নিয়ে যায়। পরে তাদেরকে গলা টিপে হত্যা করে বাড়ির পাশের পুকুরে ফেলে দেয়। শিশু দুটি না পেয়ে এলাকাবাসী ওই রাতেই বিভিন্ন স্থানে খোঁজতে থাকে।  অনেক খোঁজাখুজির পর রাত ২টায় পুকুর থেকে বেড় জাল দিয়ে প্রথমে উদ্ধার করা হয় রুমানের লাশ। আর গতকাল মঙ্গলবার সকালে অপর ৫ মাসের শিশু ঐশির লাশ উদ্ধার করে এলাকাবাসী।
এ ঘটনার সাথে জড়িত বাবা ওয়ালী উল্লাহকে গতকাল মঙ্গলবার কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ গ্রেফতার করে। সে পুলিশের কাছে শিশু দুটি হত্যার কথা স্বীকার করেছে। সহোদর দুই শিশুর লাশ ঊদ্ধারে এলাকায় শোকের মাতম বইছে। স্বজনদের কান্নায় ভারি হয়ে উঠছে ওই এলাকার বাতাস।
কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ আলী বলেন, শিশু দুটিকে তাদের বাবা পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে পুকুরে তাদের লাশ ফেলে রাখে। ঘাতক ওয়ালী উল্লাহর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।