| |

ঝিনাইগাতীতে গার্মেন্টস কর্মী গণধর্ষণের শিকার

ঝিনাইগাতী  প্রতিনিধি :  ঝিনাইগাতী উপজেলার জড়াকুড়া গ্রামে এক গার্মেন্টস কর্মী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষিত গার্মেন্টস কর্মী ওই গ্রামের বিল্লাল হোসেনের কন্যা। ঘটনাটি ঘটে ১৩ সেপ্টেম্বর রাতে। এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ধর্ষিতা গার্মেন্টেস কর্মীকে শেরপুর সদর হাসপাতালে ডাক্তারী পরীক্ষা করা হয়। ধর্ষিতার মাতা সফুরা বেগম জানান, গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে থেকে একই সঙ্গে দুইবোন গার্মেন্টেসে চাকরী করে। ঈদের দু’দিন আগে ছুটি নিয়ে বাড়িতে আসা তারা। ঈদের রাতে দুইবোনের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ বেধে বড়বোন রাগ করে বাড়ী থেকে গাজীপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। জড়াকুড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এলে রাত ৯টার দিকে স্থানীয় ১০/১৫ জন যুবক ওই গার্মেন্টস কর্মী (২০)কে পথরোধ করে গণধর্ষণ চালায়। ধর্ষিতার পরিবারের লোকজন বহু খুঁজা-খুঁজির পর জড়াকুড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে অজ্ঞান অবস্থায় ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে। এ ঘটনাকে পুজি করে স্থানীয় কু-চক্রী মহল ধর্ষকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় মোটা অঙ্কের অর্থ। তারা ধর্ষণের ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালায়। খবর পেয়ে ১৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার থানা-পুলিশ ধর্ষিতাকে তার বাড়ি থেকে থানায় নিয়ে আসে। ওসি মিজানুর রহমান গার্মেন্টস কর্মী ধর্ষণের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।