| |

কৃষ্ণচূড়া চত্বরে শ্রমিক-জনতার সমাবেশে এড. জহিরুল হক স্বাধীনতার শত্রুদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে মোকাবেলা করবোই

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ প্রশাসক এড. জহিরুল হক খোকা বলেছেন বাঙ্গালী জাতি যাতে মাথা উচু করে দাঁড়াতে না পারে সেই লক্ষ্যে ৭১ এর পরাজিত শক্তি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জেল খানায় জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করে জাতিকে নেতৃত্ব শূন্য করেছিল। তারা স্বাধীনতার মূল চেতনাকে নস্যাৎ করার জন্য এখনও ওই চক্র দেশে-বিদেশে চক্রান্ত করে যাচ্ছে। ঐকবদ্ধ ভাবে আমরা এই শত্রুদের মোকাবেলা করবোই। তিনি আরও বলেন সারা জীবন মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করেছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তার ডাকে সর্বস্তরের বাঙ্গালি ঝাপিয়ে পড়েছিল মুক্তিযুদ্ধে। এরই ফলশ্রুতিতে আমরা পেয়েছি স্বাধীনতা। ওরা বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতাকে হত্যা করলেও আদর্শকে ধ্বংস করতে পারেনি। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশকে উন্নয়নের দিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য হাল ধরেছেন। কিন্তু এই উন্নয়নের ধারাকে বাধাগ্রস্থ করতে স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি মাথাচারা দিয়ে উঠেছে। বাংলাদেশকে তারা অকার্যকর রাষ্ট্র বানাতে চায়, মিনি পাকিস্তান বানাতে চায়। তা সফল হবে না। আমরা এদের নির্মূল করতে না পারলেও নিয়ন্ত্রনে রেখেছি। আসুন উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে ঐক্যবদ্ধ ভাবে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করি এবং সুখি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলি। গতকাল রোববার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে জাতীয় শ্রমিকলীগ মহানগর শাখার উদ্যোগে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে শ্রমিক জনতার সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মহানগর শ্রমিকলীগ সভাপতি পুলক রায় চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ মানিক মিয়ার পরিচালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ ও গৌরিপুর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য নাজিম উদ্দিন আহমেদ, পৌর মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু, মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি এহতেশামুল আলম, আওয়ামীলীগ নেতা আহম্মদ আলী আকন্দ, প্রদীপ ভৌমিক, আনোয়ারা খাতুন, স্বেচ্ছা সেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক উত্তম চক্রবর্তী রকেট, মহানগর শ্রমিক লীগ নেতা নূর নবী, জাকারিয়া, বাবু উজ্জ্বল পন্ডিত, তপন সাহা, স্বপন, বাবুল হোসেন প্রমুখ।