| |

বাজিতপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় বাড়িঘর ভাঙচুর,অগ্নিসংযোগ,আহত-১০

নজরুল ইসলাম খায়রুল : কিশোরগঞ্জের বাজিতপুর উপজেলায় হাওরে সেচের স্কীমের জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় বাড়িঘর ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগসহ অন্তত: ১০ জনকে আহত করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার পারকচুয়ার নয়াহাটি গ্রামে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। আহত ব্যক্তিরা হলেন- মোঃ রতন মিয়া (২২), তাবারক মিয়া (৩০), রিপন মিয়া (৩২), মোঃ বাচ্চু মিয়া (৫০), মোঃ আগুর মিয়া (৬০), মোঃ সুমন মিয়া (২৫), শামীম মিয়া (২৪) ও সেলিম মিয়া (৩০)। এদের সবাইকে বাজিতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকাবাসী, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মাইজচর ইউনিয়নের হাওরে সেচের স্কীমের জের ধরে পারকচুয়ার পূর্বপাড়া গ্রামের আরজু মিয়াসহ কয়েকশত লোক শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে পারকচুয়ার নয়াহাটি গ্রামে বাচ্চু মিয়ার আত্মীয় স্বজনদের বাড়ীঘরে হামলা চালিয়ে অগ্নিসংযোগ, বাড়ীঘর ভাঙচুর করে এবং তাদের হামলায় অন্তত: ১০ জন আহত হয়েছে। এসময় পারকচুয়া গ্রামের এক নিরীহ বয়স্ক নারী ঘরবাড়ি হারিয়ে ডাক-চিৎকার করছেন। হামলার সময় আরজু মিয়ার লোকজন দেশীয় অস্ত্রসজ্জিত হয়ে হামলা চালালে হাজী মফিজ মিয়ার ৮ শত হাঁস ও ২ হাজার ডিম, বাচ্চু মিয়ার ৭শত হাস, এলাছ মিয়ার ১ হাজার হাঁস ও একটি নৌকা, আরাজ মিয়ার পানি সেচের মেশিন, ঢেউ টিন, আগুর মিয়ার নৌকা, দুটি তেলের ড্রাম, মফিজ মিয়ার ৫০ মন ধান লুটপাট করে নিয়ে গেছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা জানিয়েছেন। এতে ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৬-৭ লক্ষ টাকা। এ ঘটনায় বাচ্চু মিয়া বাদী হয়ে শুক্রবার সুরুজ জামালকে প্রধান আসামি করে প্রায় ২৫-৩০ জনের নামে বাজিতপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।