| |

৩০ আনসার ব্যাটালিয়নের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে রেঞ্জ পরিচালক-মোঃ নূরুল হাসান ফরিদী

গত ২১ জানুয়ারী শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলায় ৩০ আনসার ব্যাটায়িনের ২৮ তম প্রাতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ দরবার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আনসার ও ভিডিপি ময়মনসিংহ রেঞ্জ পরিচালক মোঃ নূরুল হাসান ফরিদী বলেন, সততা, নিষ্ঠা, আন্তারিকাতা ও সর্বোচ্চ ত্যাগস্বীকার করে অর্পিত দায়িত্ব পালন করতে হবে। তিনি আরো বলেন ব্যাটালিয়ন আনসারদের উপর সরকারের যে কোন অর্পিত দায়িত্ব সাহসীকতার সাথে পালন করে আসছে। ভবিষ্যতে বাহিনীর প্রতিটি সদস্য পেশাদারিত্বের সাথে যে কোন দায়িত্ব কর্তব্য আরো আন্তরিকতার সাথে পালন করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ১৯৭৬ সালে ২০ টি ব্যাটালিয়ন আনসার গঠনের মাধ্যমে এ বাহিনীর অগ্রযাত্রা শুরু হয়। বর্তমানে এ বাহিনীতে রয়েছে ২ টি মাহিলা ব্যাটালিয়নসহ ৩৯ টি আনসার ব্যাটালিয়ন। রয়েছে আনসার ষ্ট্রাইকিং ফোর্স (এ এস এফ) ব্যাটালিয়ন। ব্যাটালিয়ন আনসার সদস্যরা অত্যান্ত সুনামের সাথে বিভিন্ন অপারেশনাল দায়িত্বপালনসহ পার্বত্য চট্রগ্রামের ৩ টি জেলায় দায়িত্ব পালন, দেশের দক্ষিনাঞ্চালে  ১২৪ টি ক্যাম্পে অত্যান্ত নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। মেট্্েরাপলিটন এলাকা এবং প্রতিটি জেলায় জেলা প্রশাসন কর্তৃক মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় ব্যাটালিয়ন আনসারগণ দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালনসহ আইন শৃংখলা রক্ষায় বিশেষ ভূমিকা রাখছে। প্রতিষ্ঠা বর্ষিকীর এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ময়মনসিংহ জেলা আনসার ও ভিডিপি কমান্ড্যান্ট মোঃ জিয়াউল হাসান, নেত্রকোনা জেলা আনসার ও ভিডিপি কমান্ড্যান্ট মোঃ মেহেদী হাসান, জামালপুর জেলা আনসার ও ভিডিপি কমান্ড্যান্ট মোঃ মেহেদী হাসান, সহকারী জেলা আনসার ও ভিডিপি কমান্ড্যান্ট রোকসানা বেগম। ৩০ আনসার ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক মোঃ আম্মার হোসেন উপস্থিত অতিথিবৃন্দ এবং ব্যাটালিয়নের সকল স্তরের সদস্যদেরকে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন। উপস্থিত  প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে প্রীতি ভলিবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। সার্কেল অ্যাডজুটান্ট মোঃ আব্দুস সামাদ এর উপস্থাপনায় ২৮ তম প্রতিষ্ঠা বাষির্কী উপলক্ষে অতিথিবৃন্দ এবং ব্যাটালিয়নের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা ও সদস্যদের অংশগ্রহনে এক মনোমুগ্ধকর স্বাস্কৃতিক সন্ধার আয়োজন করা হয়। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে অতিথি বৃন্দের অংশগ্রহণ এবং দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য আগামীতে ৩০ তম আনসার ব্যাটার্লিয়নের সকল পর্যায়ের সদস্যদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে অনুপ্রানিত ও মনোবল বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে এটাই প্রত্যাশা।