| |

ফুলপুরে চিকিৎসকদের কর্মবিরতি শুরু

ফুলপুর  প্রতিনিধি : ফুলপুর হাসাপাতালের চিকিৎসককে মারধরের ঘটনার বিচারের দাবিতে গতকাল বুধবার থেকে সকল চিকিৎসকগণ কর্মবিরতি পালন শুরু করেছেন। ফুলপুর হাসপাতালে বিএমএ-এর এক সভার সিদ্ধান্তে কর্মসূচি পালন শুরু হয়। জানা যায়, সোমবার রাতে ফুলপুর হাসপাতালে কাড়াহা গ্রামের আমজাদ হোসেনের স্ত্রী আয়েশা খাতুনকে (৬০) চিকিসৎসার জন্য আনা হয়। পরে গুরুতর অবস্থায় ময়মনসিংহ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যায়। নিহতের স্বজনরা লাশ নিয়ে ফুলপুর হাসপাতালে ফিরে এসে অবহেলার অভিযোগ এনে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. জাকির হোসেনকে মারধর করে। এর বিচারের দাবিতে মঙ্গলবার থেকে হাসপাতাল বহিঃ বিভাগে চিকিৎসকরা ধর্মঘট পালন শুরু করে। সেই সাথে বুধবার থেকে উপজেলার সকল চেম্বারে ডাক্তারদের কর্মবিরতি শুরু হয়। ফুলপুর হাসপাতালে বুধবার বিএমএ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি এসএনএফ ডা. আনম ফজলুল হক পাঠান, সিভিল সার্জন মোঃ খলিলুর রহমান, বিএমএ জেলা শাখার সভাপতি ডা. মতিউর রহমান ভূইয়া, সাধারণ সম্পাদক ডা. এইচএ গোলন্দাজ তারা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. পরিমল কুমার পাল, হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. গণপতি আদিত্যসহ সকল চিকিৎসকগণের উপস্থিতিতে এক সভায় অনির্দিষ্ট কালের কর্মবিরতি পালনের সিদ্ধান্ত হয়। তবে হাসপাতালের জরুরি বিভাগ খোলা থাকবে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. পরিমল কুমার পাল জানান, অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতার না করলে কর্মসূচি আরও প্রসারিত হবে। হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. গণপতি আদিত্য জানান, কর্মসূচি থাকায় চেম্বারে রোগী দেখা বন্ধ রয়েছে।