| |

হালুয়াঘাটে ভ্রাম্যমান আদালতে সার ব্যবসায়ীর জরিমানা

হুমায়ুন কবীর মানিক  ঃ অবৈধভাবে ইউরিয়া সার বেশি দামে বিক্রয় এবং মেয়াদ উর্ত্তিন ঔষধ রাখার অভিযোগে ময়মনসিংহের  হালুয়াঘাট ধারা বাজারে বেশ কয়েকটি দোকানে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ২৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাকির হোসেন। গত বুধবার বিকেল থেকে সন্ধা পর্যন্ত এই অভিযান অব্যহত ছিল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুলতান আহমেদ, পুলিশের এস.আই মোঃ দেলোয়ার হোসেন সহ সঙ্গীয় ফোর্স, বিজয় টিভির সাংবাদিক মোঃ আব্দুল হক লিটন প্রমূখ।
এদিকে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ রাখার দায়ে ২০০৯ এর ৫১ ধারায় সার ব্যবসায়ী নূর হোসেন ও এমদাদুল হককে ভূক্তা অধিকার আইন মোট বিশ হাজার টাকা ও মোঃ শেখ চাঁনকে মূল্য তালিকা না থাকায় ভূক্তা অধিকার আইন ২০০৯ এর ৩৮ ধারায় ৩০০০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, জানুয়ারী ও ফেব্রুয়ারী মাসে মিল ও বাফার নিকট প্রায় ৩০০০ হাজার মেক্ট্রিকটন ইউরিয়া সার পাওনা আছে তা সত্যেও ইউরিয়া সার বি.সি.আই.সি ডিলারদের নিকট সরবরাহ করা হচ্ছে না। উপজেলায় ১৫০ থেকে ১৬০ মেট্রিকটন ইউরিয়া সারের চাহিদা থাকলেও সরবরাহ করা হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ মেট্র্কিটন।বর্তমানে উপজেলায় বোরো মৌসুমে  পিক-পিরিয়ড চলমান আছে। সরবরাহ কম থাকায় ইউরিয়া সারের চাহিদা পূরণে সাময়িক সমস্যা হচ্ছে।
ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানের বিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সুলতান আহমদ বলেন, কিছু অসাধু ব্যবসায়ী গোপনভাবে ইউরিয়া সার, সরকার নির্ধারিত মূল্যে ৮০০ টাকার চেয়ে  অধিকমূল্যে বিক্রি করছে বলে অভিযোগ পেয়েছি। তাদের ধরতে আমাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে। ইউরিয়া সার যেন কৃষকরা ন্যায্যমূল্যে পেতে পারে সে ব্যাপারে আমাদের সকল কৃষি কর্মকর্তারা তৎপর রয়েছেন।