| |

ঈশ্বরগঞ্জে বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহার দবিতে কাফনের কাপড় পরে পরীক্ষাথীদের মানববন্ধন

ঈশ্বরগঞ্জ প্রতিনিধি : ‘বহিষ্কার আদেশ তুলে নিন নইলে মুখে বিষ দিন’ এ শ্লোগানে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের ৩৩  শিক্ষার্থীর  বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহার দাবিতে কাফনের কাপড় পরে সড়ক অবরোধ করে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। এ মানব বন্ধন কর্মসূচিতে সাধারণ শিক্ষার্থীরাও  একাত্মতা ঘোষণা করে।   এ সময় মহাসড়কে দু’ পার্শ্বে ১ কিলোমিটার ব্যাপি যানজটের সৃষ্টি হয়।   মানব বন্ধন শেষে শিক্ষার্থীরা জাতীয় বিশ্ব বিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বরাবর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে স্মারক লিপি প্রদান করে। গতকাল বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহ –  কিশোরগঞ্জ মহাসড়কে ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের সম্মুখে  দুপুর  একটা থেকে দু’টা পর্যন্ত  ঘন্টা ব্যাপি  মানব বন্ধন কর্মসূচি পালন করে। জানাযায়, ঈশ্বরগঞ্জ কলেজ থেকে  ২০১৪ /১৫ শিক্ষাবর্ষে ¯œাতক (পাস) প্রথম বর্ষের  ৮৩ জন   ছাত্র ছাত্রী শহীদ স্মৃতি আদর্শ কলেজ নান্দাইল কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ  করে। এর মাঝে  ৩৩ জন পরীক্ষার্থী গত ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ সালে মাকেটিং ২য়  পত্র পরীক্ষা দেয় । পরীক্ষার ৪ মাস পর গত ২৮ জানুয়ারি ২০১৭ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষক কর্তৃক ওই ৩৩ জন  পরীক্ষার্থীকে বহিস্কার করা হয়েছে মর্মে  ঈশ্বরগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষসহ সকল পরীক্ষার্থীদের চিঠি দেয়া হয়।
শিক্ষার্থীরা বহিষ্কারের চিঠি পেয়ে হতাশ হয়ে পড়ে।  তারা জানে না কি কারণে তাদেরকে বহিষ্কার করা হয়েছে।  এ ব্যাপারে নান্দাইল কলেজের অধ্যক্ষ নাজিম উদ্দিন  জানান  পরীক্ষা চলা কালীন সময়ে  তার কলেজ কেন্দ্র থেকে  কোন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার হয়নি। ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজর অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম খান জানান পরীক্ষার্থীরা কোন অসদুপায়  অবলম্বন  না করে পরীক্ষা যথাযথ ভাবে সম্পন্ন করেছে । সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ  প্রত্যাহার করার  জন্য সুপারিশ করে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বরাবরে আবেদন করেছেন । পরীক্ষার্থীরা অবিলম্বে এ বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা না হলে কঠোর কর্মসূচি  পালনের  ঘোষণা দেয়।