| |

কিশোরগঞ্জে আর্ন্তজাতিক নারী দিবস উপলক্ষে ভিলেজেস ক্যাম্প ২০০ উদ্বোধন

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ ‘গড়ে তুলি নিরাপদ আবাসন,নিরাপদ স্কুল-কলেজ,বন্ধ হোক কন্যা শিশুর উপর সকল নির্যাতন” এই শ্লোগানে আর্ন্তজাতিক নারী দিবস উপলক্ষে কিশোরগঞ্জ ১৬ দিন ব্যাপী ভিলেজেস ক্যাম্প ২০০ এর বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক জিএসএম জাফরউল্লাহ।

“বাল্য বিবাহ দিব না, জীবন ধবংস করব না,বাল্য বিবাহ বন্ধে সক্রিয় থাকব,সবাই মিলে প্রতিরোধ করব” এই অঙ্গিকার বাস্তবায়নকে সামনে রেখে পপির পরিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধ প্রকল্পের ব্যবস্থাপনায় গতকাল সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে থেকে ১৬ দিন ব্যাপী ভিলেজেস ক্যাম্প ২০০ এর বর্ণাঢ্য র‌্যালী ও কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক জিএসএম জাফরউল্লাহ। র‌্যালীটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মহিনন্দ ইউনিয়নের কলাপাড়া মোড়ে এসে পথ সভার মধ্যেমে সমাপ্ত হয় । পথ সভায় বক্তারা নারীর অধিকার স্বীকৃতি, ভোগ ও র্চ্চার মাধ্যমে নারীর সম্মান ও মর্যাদা প্রতিষ্ঠা, সর্বোপরি নারীর প্রতি সকল ধরনের বৈষম্য ও সহিংসতা বন্ধ এবং বাল্য বিবাহ প্রতিরোধের উপর বক্তব্য রাখেন । এ সময় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান কামরুন্নাহার লুনা, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা কামিজা ইয়াছমিন, কন্যা শিশু এ্যাডভোকেসি ফোরামের সভাপতি এ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন ফারুকী, কিশোরগঞ্জ মানবাধিকার ফোরামের সভাপতি রুহুল আমিন, কিশোরগঞ্জ প্রেসক্লাবের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মুনিরুজ্জামান খান চৌধুরী সোহেল ও সাংবাদিক আলম সারোয়ার টিটু প্রমুখ।
কর্মকর্তারা জানান, পপির পরিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধ প্রকল্পের আওয়াতায় কিশোরগঞ্জ জেলার ৫টি উপজেলায় (কিশোরগঞ্জ সদর,বাজিতপুর, কুলিয়ারচর, মিঠামইন ও ইটনা ) নারীর অধিকার স্বীকৃতি, ভোগ ও র্চ্চার মাধ্যমে নারীর সম্মান ও মর্যাদা প্রতিষ্ঠা, সর্বোপরি নারীর প্রতি সকল ধরনের বৈষম্য ও সহিংসতা বন্ধ এবং বাল্য বিবাহ প্রতিরোধের উপর ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে ২০০টি গ্রামকে বাল্যবিবাহ ও নারী নির্যাতন মুক্ত গ্রাম হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করবে ।