| |

দীপাবলি উৎসবের মধ্য দিয়ে ময়মনসিংহে শ্রী শ্রী শ্যামা মায়ের পূজা অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার: ‘করোনার মহামারী কেটে যাক-দূর হোক সকল সংকট সহস্র প্রদীপ শিখায়’ প্রতিপাদ্য নিয়ে ময়মনসিংহে শুভ দীপাবলি অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার ১৪ নভেম্বর সন্ধায় নগরীর দূগাবাড়ী মন্দিরে আর্যধর্ম জ্ঞান প্রদায়িনী সভা ধর্মসভা দূর্গাবাড়ী মন্দির কমিটির আয়োজনে শুভ দীপাবলি উপলক্ষে সহস্র প্রদীপ প্রজ্জলন করা হয়। প্রদীপ প্রজ্জলন অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করেন বিভাগীয় কমিশনার মো: কমরুল হাসান এনডিসি, অতিরিক্ত রেঞ্জ ডিআইজি ড. আক্কাছ উদ্দিন ভূইয়া, জেলা প্রশাসক মো: মিজানুর রহমান, পুলিশ সুপার মোহা: আহমার উজ্জামান বিপিএম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জয়িতা শিল্পী, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, দৈনিক স্বদেশ সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক শ্রী জগদীশ চন্দ্র সরকার, ময়মনসিংহ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক অমিত রায়, মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি এহতেশামুল আলম, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, সিপিবি জেলা কমিটির সভাপতি এডভোকেট এমদাদুল হক মিল্লাত, জেলা জাসদ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সাদিক হোসেন, পূজা উদ্যাপন জাতীয় পরিষদ সদস্য এডভোকেট প্রণব কুমার সাহা রায়, হিন্দু বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি এডভোকেট বিকাশ রায়, জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রাখাল চন্দ্র সরকার, মহানগর পূজা কমিটির সভাপতি এডভোকেট তপন চন্দ্র দে, সাধারণ সম্পাদক উত্তম চক্রবর্তী রকেট, মহানগর হিন্দু বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি এডভোকেট প্রশান্ত কুমার দাস চন্দন, সাধারণ সম্পাদক পবিত্র রঞ্জন রায়, সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব শাহাদাত হোসেন খান হিলু, বিএমএ ময়মনসিংহ শাখা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডা: এইচ এ গোলন্দাজ তারা প্রমুখ। আর্যধর্ম জ্ঞান প্রদায়িনী সভা ধর্মসভা দূর্গাবাড়ী মন্দির কমিটি সভাপতি অধ্যাপক বিমল কান্তি দে এর সভাপতিত্বে প্রদীপ প্রজ্জলন অনুষ্ঠানে সঞালনায় ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শংকর সাহা। এসময় সুধি ভক্তবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রদীপ প্রজ্জলন কালে সংগীত পরিবেশন করেন প্রদীপ চক্রবর্তী, বিজন তুকদার, সাদিকুন নাহার সুচি ও তবলায় ছিলেন মনি কাঞ্চন আইচ। স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জয়িতা শিল্পী। প্রদীপ প্রজ্জলনের পাশাপাশি নাট মন্দিরে শুরু হয় শ্যামা মায়ের পূজা। এতে পুরোহিত্বে ছিলেন দূর্গাবাড়ী মন্দিরের প্রধান পুরোহিত শ্রী অরুণ ভট্টাচার্য্য। এছাড়াও নগরীর বিভিন্ন স্থানে শ্যামা মায়ের পূজা অনুষ্ঠিত হয়। ভক্তদের বাড়ি বাড়ি ও নগরীর মহাশ্মশানে প্রয়াতদের আতœার শান্তি কামনায় প্রদীপ প্রজ্জলন করা হয়।