| |

ভাস্কর্য হলো একটি জাতি বা দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির নিদর্শন – স্বেচ্ছাসেবকলীগ ময়মনসিংহ জেলা শাখার বর্ধিত সভায় আফজালুর রহমান বাবু

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ ময়মনসিংহ জেলা শাখার বর্ধিত সভা গতকাল শনিবার ১৯ ডিসেম্বর” দুপুরে নগরীর মোস্তাফিজ কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ কেন্দ্রিয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এ. কে. এম. আফজালুর রহমান বাবু। এসময় তিনি বলেন, স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পরে যে প্রশ্নগুলির সমাধান ৭১ এর মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমেই শেষ হয়ে গেছে। এরপরও কিছু ধর্ম ব্যবসায়ী মৌলবাদী, জামাত শিবিরের এজেন্ট যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে কথা বলছেন, আঘাত করছেন সারা বাংলার মানুষ তাদের প্রতিরোধ করার জন্য একত্রিত হয়েছে। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণসহ বিভিন্নখাতে অভাবনীয় উন্নয়ন হয়েছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন বিশ্বকে চমকে দিয়েছে। ঠিক এই মুহুর্তে বিজয়ের ৪৯ বছর পর স্বাধীনতা বিরোধী ও পাকিস্তানের দুষররা দেশকে অস্থিতিশীল করতে ধর্মের নামে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যকে মুর্তি হিসাবে আখ্যা দিয়ে নানা কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ভাস্কর্য হলো একটি জাতি বা দেশের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির নিদর্শন। সৌদি, ইরাক, ইরাম, মিশর, তুরস্কসহ বিভিন্ন মুসলিম প্রধান দেশে ভাস্কর্য রয়েছে। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু মানে বাংলাদেশ। এই দেশ কারো দানে পাওয়া নয়। ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত এই স্বাধীনতা। স্বাধীনতা বিরোধী চক্রকে মাথাচারা দিয়ে উঠতে দেয়া হবে না। জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি এডভোকেট এ বি এম নূরুজ্জামান খোকন এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক উত্তম চক্রবর্তী রকেট এর সঞ্চালনায় বর্ধিত সভায় আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে জাতীয় সংসদ সদস্য নাজিম উদ্দিন আহমেদ, সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো: ইকরামুল হক টিটু, মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি এহতেশামুল আলম, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এসময় স্বেচ্ছাসেবকলীগ কেন্দ্রিয় কমিটির সহ-সভাপতি মজিবুর রহমান স্বপন, য়ুগ্ম সম্পাদক এ কে এম আজিম, সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবিদ আ.ফ.ম. মাহবুবুল হাসান মাহবুব, স্থানীয় সরকার সম্পাদক মোস্তফা কামাল মনি, সদস্য গোলাম রব্বানী, এডভোকেট তপু গোপালসহ স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রিয় ও জেলা ও মহানগর শাথার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে সকালে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ কেন্দ্রিয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এ. কে. এম. আফজালুর রহমান বাবু ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা আঠারবাড়ী ইউনিয়নের পাড়া খালবলা গ্রামের কৃষক আব্দুল কাদিরের শিল্পকর্ম বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা কৃষকের মাঠ পদির্শণ করেন। এসময় স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রিয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ সাথে ছিলেন।
উল্লেখ্য মুজিব বর্ষ ও বিজয়ের মাস ডিসেম্বর উপলক্ষে ফসলের মাঠে উপজেলার আঠারবাড়ী ইউনিয়নের পাড়া খালবলা গ্রামের কৃষক আব্দুল কাদির নিজ জমির ক্যানভাসে শাক সবজির মাধ্যমে এঁকেছেন অভাবনীয় এক শিল্পকর্ম। তাঁর ছবি আঁকার মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করেছেন সবজি ফসল লাল শাঁক ও সরিষা। তিনি এ শিল্পকর্মটি করেছেন বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি, স্মৃতিসৌধ, জাতীয় ফুল শাপলা ও নৌকার। এতে ফুলেল শ্রদ্ধায় ভালোবাসায় হেসে উঠেছে বঙ্গবন্ধুর এক খন্ড নান্দনিক সবুজ বাংলাদেশ। তিনি ৩৩ শতক জমিতে তুলে ধরেছেন বাংলা ও বাঙালির অসামান্য প্রতিচ্ছবি।