| |

র‌্যাবের অভিযানে ভৈরবে ভারতীয় শাড়ি ও ব্যাথানাশক ট্যাবলেটসহ চোরা কারবারি আটক

নজরুল ইসলাম খায়রুল, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় ৯৭টি ভারতীয় শাড়ি ও ৫ লাখ ২ হাজার ব্যাথানাশক ট্যাবলেটসহ মো. নাজিম মিয়া (২৬) নামে এক চোরাচালান কারবারিকে আটক করেছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা।

গতকাল শুক্রবার (০৮ অক্টোবর) বিকেলে কিশোরগঞ্জের ভৈরব র‌্যাব ক্যাম্প থেকে এই তথ্য প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়।

আটক চোরাচালান কারবারি মো. নাজিম মিয়া (২৬) সিলেট জেলার জৈন্তাপুর উপজেলার উপশ্যামপুর এলাকার মৃত মাহমুদ আলীর ছেলে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল শুক্রবার (০৮ অক্টোবর) ভোররাত ৪টার দিকে উপজেলার দূর্জয়মোড় এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব সদস্যরা। এসময় একটি পিকআপ ভ্যানসহ চারাচালান কারবারি মো. নাজিম মিয়াকে আটক করা হয়। পরে পিকআপ ভ্যান তল্লাশী করে ৯৭টি ভারতীয় শাড়ি ও ৫ লাখ ২ হাজার ব্যাথানাশক ট্যাবলেট উদ্ধার করে জব্দ করা হয়। উদ্ধারকৃত ভারতীয় শাড়ির আনুমানিক মূল্য ৪ লাখ টাকা এবং ভারতীয় ঔষধের (ব্যাথানাশক ট্যাবলেট) আনুমানিক মূল্য ২৫ লাখ ১০ হাজার টাকা।

র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে চোরাচালান কারবারি মো. নাজিম মিয়া জানায় যে, সে দীর্ঘদিন যাবত সিলেট জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে চোরাচালানের মাধ্যমে শাড়ি ও ঔষধ দেশের অভ্যন্তরে বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে বিক্রয় করে আসছিল।

র‌্যাব-১৪, সিপিসি-৩ ভৈরব ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিউদ্দীন মোহাম্মদ যোবায়ের জানান, উদ্ধারকৃত চোরাচালানকৃত মালামাল এবং আটক মো. নাজিম মিয়ার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইন ১৯৭৪ মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।