| |

টাঙ্গাইলের পাঁচ দুর্গাপূজা মন্ডপ পুরস্কৃত

মোঃ তুহিন মিয়া, টাঙ্গাইলঃ টাঙ্গাইলে জেলার মোট এক হাজার ২৪২টি দুর্গাপূজা ম-পের মধ্যে শ্রেষ্ঠ পাঁচ পূজাম-পকে পুরস্কৃত করা হয়েছে। গত সোমবার (১ নভেম্বর) দুপুরে জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই পুরস্কার দেয়া হয়।

শারদীয় দুর্গাপূজায় এ বছর টাঙ্গাইলে শ্রেষ্ঠ ম-প হয়েছে করটিয়া সা’দত বাজার পূজাম-প। দ্বিতীয় হয়েছে আদালতপাড়া পূজা সংসদ, তৃতীয় মধুপুর জলছত্র হরিসভা দুর্গা মন্দির, চতুর্থ মির্জাপুর আনন্দময়ী যুব সংঘ ও পঞ্চম হয়েছে কালিহাতী জয়কালী মন্দির।

জেলা প্রশাসক ড. মো. আতাউল গনির সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুক, সংসদ সদস্য আতাউর রহমান খান, সংসদ সদস্য মো. ছানোয়ার হোসেন, সংসদ সদস্য হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারী, সংসদ সদস্য ছোট মনির, পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান আনছারী, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি সুভাষ চন্দ্র সাহা, টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি জাফর আহমেদ, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি আনন্দ মোহন দে ও সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার গুন ঝন্টু প্রমুখ।

উপস্থিত আলোচনায় উঠে আসে, টাঙ্গাইলের মাটিতে মুসলিম ও অন্যান্য ধর্মালম্বীরা পরস্পর অন্যের সহযোগী ও ভ্রাতৃত্বপূর্ণ ভাবে বসবাস সহ বাংলাদেশকে সমান ভালোবেসে এবং এক অপরের সহযোগী হয়ে এগিয়ে নিতে আমরা কাজ করে যাব। আর অবশ্যই ধর্মীয় গোড়ামী থেকে বেড়িয়ে আসব। ধর্মীয় গোড়ামি বা অন্য ধর্মকে ছোট করে দেখার ফলে মানুষে মানুষে বিভেদসহ, রাষ্ট্রে অশান্তি সৃষ্টি হয়, যা আমাদের মোটেও কাম্য নয়। যা আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) কখনো করেন নি, তিনি অন্য ধর্মালম্বিদের সম্মান করতেন। যারা সমাজে বিশৃঙ্খোলার সৃষ্টি করতেন শুধু তাদেরকে প্রতিহত করতেন। কেউ অন্যায় ভাবে আগে আঘাত না করলে, তিনি আগে আঘাত করতেন না। #