| |

ময়মনসিংহে কলেজ শিক্ষার্থী হত্যার ঘটনায় প্রধান আসামী পিয়াস সহ তিন জন গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ময়মনসিংহের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর শিক্ষার্থী মুহতাসিম বিল্লাহ শাকিল হত্যার প্রধান আসামী পিয়াস সহ তিন আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত সোমবার (১ ফেব্রুয়ারী) দিবাগত রাতে কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর ও ময়মনসিংহের পাগলা থানায় অভিযান চালিয়ে এই তিনজনকে গ্রেফতার করে কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো প্রধান আসামী আসাদুজ্জামান পিয়াস (১৯), জামিল হোসেন পিয়াস ওরফে এল পিয়াস (১৯) ও রিফাত ইয়াসিন তুবা। এরা তিনজনই শহরের রয়েল মিডিয়া কলেজের দ্বাদশ শ্রেনির শিক্ষার্থী।
কোতোয়ালী মডেল থানার সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুর রশিদ জানান, মেয়েদের উত্তক্ত্যের প্রতিবাদ করাকে কেন্দ্র করে এরা এই হত্যাকান্ড ঘটায়।ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় এই হত্যাকান্ডে সৈয়দ নজরুল কলেজ, রয়েল মিডিয়া কলেজ, নটরডেম কলেজ ও আনন্দ মোহন কলেজের ১৪জন শিক্ষার্থী অংশ নেয়। হত্যাকান্ডের একদিন পর নিহত শাকিলের বাবা এমদাদুল হক বাদী হয়ে কোতোয়ারী মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১০৭ (১) ১৬। এরপর থেকেই ঘাতকরা পলাতক ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই আশরাফুল ইসলাম এর নেতৃত্বে কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশের একটি দল সোমবার রাতে কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর ও ময়মনসিংহের পাগলা থানায় অভিযান চালিয়ে এই তিনজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। গ্রেফতারকৃতরা হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।
গত বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারী) বিকেলে শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর (বানিজ্য) শিক্ষার্থী মুহতাসিম বিল্লাহ শাকিল শহরের বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিয়ে বাসায় ফেরার পথে কলেজ রোড এলাকার রাস্তায় পথরোধ করে তারই কয়েকজন সহপাঠী। সেখানে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে শাকিলকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় তারা। স্থানীয়রা গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা সাতটার দিকে তার মৃত্যু হয়। উল্লেখ্য, ধৃত আসামী আসাদুজ্জামান পিয়াস শহরের আকুয়া চুকাইতলার আলী আহাম্মদের (আঙ্গুর মিয়া) পুত্র, ধৃত জামিল হোসেন পিয়াস পাগলা থানার ময়রা গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র ও ধৃত রিফাত ইয়াসিন তুবা শহরের গলগন্ডা জেল রোডের সাইফুল ইসলামের পুত্র।