| |

কালিহাতীতে পুলিশের গুলিতে নিহতের ঘটনায় জড়িত পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার করা হবে- ডিআইজি এসএম মাহফুজুল হক নুরুজ্জামান

সংবাদদাতা :ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি এসএম মাহফুজুল হক নুরুজ্জামান বলেছেন, টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে পুলিশের গুলিতে তিনজন নিহতের ঘটনায় জড়িত পুলিশ সদস্যদের টাঙ্গাইল পুলিশ লাইনে ক্লোড করা হবে।  তিনি বলেন, ঢাকা বিভাগের এডিশনার ডিআইজি মোহম্মদ আলী মিয়াকে প্রধান করে আরো একটি ৫ সদস্য কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ন্যায় বিচারের স্বার্থে মানুষের জনগণের নিরপত্তার স্বার্থে যা করনীয় আমরা কবর। এ ঘটনায় পুলিশ জড়িত থাকলে তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে। শনিবার বিকেলে কালিহাতী থানায় সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মো: জিল্লার রহমান, এডিশনার ডিআইজি মোহম্মদ আলী মিয়া, জেলা প্রশাসক মো: মাহবুব হোসেন, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার সঞ্জয় সরকার।
উল্লেখ্য, শুক্রবার বিকালে ধর্ষকের বিচার চেয়ে টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ সড়কে বিক্ষোভ বের করে ঘাটাইল ও কালিহাতী উপজেলার বিক্ষুব্ধ জনতা। এ সময় পুলিশ এতে বাধা দিলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ শটগানের গুলি ছুড়লে দশজন আহত হন। পরে এ ঘটনায় ৩ জন নিহত হয়। নিহতরা হলেন, ঘাটাইল উপজেলার কালিয়া গ্রামের আলহাজের ছেলে শামীম (৩৫), কালিহাতী উপজেলার সাতুটিয়া গ্রামের বাসিন্দা ফারুক হোসেন (৩২) ও  একই উপজেলার সলঙ্গা গ্রামের রবি চন্দ্র দাসের ছেলে শ্যামল চন্দ্র দাস।
নিহতরা হলেন ঘাটাইল উপজেলার উত্তর সালেঙ্কা গ্রামের ওসমানের ছেলে শামীম (৩৫), কালিহাতী উপজেলার সাতুটিয়া গ্রামের বাসিন্দা ফারুক হোসেন (৩২) ও একই উপজেলার সলঙ্গা গ্রামের রবি চন্দ্র দাসের ছেলে শ্যামল চন্দ্র দাস।